স্পেন দলে পরিবর্তন

12

বিশ্বকাপ বাছাইয়ের জন্য স্পেন দলে এসেছে বেশ কিছু পরিবর্তন। রাখা হয়নি দুই মিডফিল্ডার থিয়াগো আলকান্তারা ও পেদ্রিকে। লুইস এনরিকের দলে রিয়াল মাদ্রিদের কোনো ফুটবলারের জায়গা হয়নি এবারও। ইউরো ২০২০ স্কোয়াডের দল থেকে সাতটি পরিবর্তন এনেছে স্পেন। প্রথমারের মতো ডাক পেয়েছেন ভালেন্সিয়ার মিডফিল্ডার কার্লোস সলের ও পর্তুগালের দল ব্রাগার স্ট্রাইকার আবেল রুইস। দলে ফিরেছেন ওয়েস্ট হ্যাম ইউনাইটেডের মিডফিল্ডার পাবলো ফোরনালস ও ভিয়ারিয়াল অধিনায়ক রাউল আলবিওল। ফোরনালস সবশেষ জাতীয় দলের হয়ে খেলেছেন ২০১৮ সালে, আলবিওল পরের বছর। চোটের কারণে এবারও জায়গা হয়নি অভিজ্ঞ সেন্টার ব্যাক সের্হিও রামোসের। সুযোগ পাননি টোকিও অলিম্পিকে রুপা জেতা পাও তরেস, দানি ওলমো ও মিকেল ওইয়ারসাবালও। গত মৌসুম থেকে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ৭৫ ম্যাচ খেলা পেদ্রিকে বিশ্রাম দিয়েছে বার্সেলোনা। আর মৌসুমে ক্লাবের হয়ে এখনও মাঠে নামার সুযোগ হয়নি থিয়াগোর। ইউরোপিয়ান অঞ্চলের বিশ্বকাপ বাছাইয়ের ‘বি’ গ্রæপে আগামী ২ সেপ্টেম্বর সুইডেনের মাঠে খেলবে স্পেন। তিন দিন পর ২০১০ বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের প্রতিপক্ষ সফরকারী জর্জিয়া। এরপর আগামী ৮ সেপ্টেম্বর তারা খেলবে কসোভোর মাঠে। তিন ম্যাচে সাত পয়েন্ট নিয়ে গ্রæপের শীর্ষে স্পেন। দুই ম্যাচে ছয় পয়েন্ট সুইডেনের।
স্পেন দল:
গোলরক্ষক: দাভিদ দে হেয়া (ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড), উনাই সিমোন (আথলেতিক বিলবাও), রবের্ত সানচেস (ব্রাইটন অ্যান্ড হোভ অ্যালবিয়ন)।
ডিফেন্ডার: জর্দি আলবা (বার্সেলোনা), হোসে গায়া (ভালেন্সিয়া), সেসার আপসপিলিকুয়েতা (চেলসি), মার্কোস ইয়োরেন্তে (আতলেতিকো মাদ্রিদ), এরিক গার্সিয়া (ম্যানচেস্টার সিটি), এমেরিক লাপোর্ত (ম্যানচেস্টার সিটি), ইনিগো মার্তিনেস (আথলেতিক বিলবাও), রাউল আলবিওল (ভিয়ারিয়াল)।
মিডফিল্ডার: সের্হিও বুসকেতস (বার্সেলোনা), রদ্রি (ম্যানচেস্টার সিটি), কোকে (আতলেতিকো মাদ্রিদ), মিকেল মেরিনো (রিয়াল সোসিয়েদাদ), কার্লোস সলের (ভালেন্সিয়া), ব্রাইস মেনদেস (সেল্তা ভিগো)।
ফরোয়ার্ড: পাবলো ফোরনালস (ওয়েস্ট হ্যাম ইউনাইডেট), পাবলো সারাবিয়া (পিএসজি), ফেররান তরেস (ম্যানচেস্টার সিটি), আদামা ত্রাওরে (উলভারহ্যাম্পটন ওয়ানডারার্স), আলভারো মোরাতা (ইউভেন্তুস), জেরার্দ মরেনো (ভিয়ারিয়াল), আবেল রুইস (ব্রাগা)।