সুইস ব্যাংকে ৩৪ লাখ একাউন্টের তথ্য

5

বার্ষিক তথ্য বিনিময় চুক্তির মাধ্যমে সুইজারল্যান্ড থেকে নিজ নিজ দেশের নাগরিক ও সংস্থাগুলির সুইস ব্যাংক একাউন্টের তথ্য হাতে পেল ভারতসহ ৭৪টি দেশের সরকার।হিন্দুস্তান টাইমস এ তথ্য জানিয়েছে। সুইস ফেডারেল ট্যাক্স অ্যাডমিনিস্ট্রেশন জানিয়েছে, গত সেপ্টেম্বরেই এই তথ্য তুলে দেওয়া হয়েছে ভারতসহ ৭৪টি দেশের সরকারের হাতে। মোট ৩৪ লাখ একাউন্টের তথ্য সংশ্লিষ্ট সরকারগুলিকে দেওয়া হয়েছে। এদিকে ভারতীয় কর্তৃপক্ষের তরফে জানানো হয়েছে, এই তথ্যের ভিত্তিতে কর ফাঁকি, বেআইনি লেনদেন, নাশকতা, অর্থ পাচার, তছরুপের মতো দুর্নীতির তদন্ত চলবে। তবে কার একাউন্টের তথ্য কেন্দ্র হাতে পেয়েছে, তা প্রকাশ করেনি। তথ্য আদান প্রদানের শর্ত অনুযায়ী, প্রাপ্ত তথ্য প্রকাশ করা যাবে না। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ভারতীয় এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, তালিকায় থাকা একাউন্টের মালিকদের বেশিরভাগই ব্যবসায়ী। অনাবাসী ভারতীয়দের সংখ্যা তালিকায় বেশি। দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, কিছু আফ্রিকান এবং দক্ষিণ আমেরিকার দেশে বসবাসরত ব্যবসায়ীর নাম রয়েছে তালিকায়। জানা গিয়েছে, চলতি বছরে সুইস কর্তৃপক্ষ ইতিমধ্যেই ১০০ জনেরও বেশি ভারতীয় নাগরিক এবং সংস্থার তথ্য দিয়েছে ভারত সরকারকে। পানামা, ব্রিটিশ ভার্জিন দ্বীপপুঞ্জ এবং কেম্যান দ্বীপপুঞ্জে ব্যবসা করা ভারতীয় সংস্থার নামও দিল্লিকে দিয়েছে সুইস কর্তৃপক্ষ। এই নিয়ে টানা চতুর্থ বছর সুইস ব্যাংকে থাকা ভারতীয়দের একাউন্টের বিশদ জানতে পেল ভারত। এদিকে কিছু রাজ পরিবারের সদস্য, রাজনীতিবিদেরও নাম রয়েছে সুইজারল্যান্ডের দেওয়া তালিকায়। তালিকায় থাকা ব্যক্তি বা সংস্থার ট্যাক্স আইডেন্টিফিকেশন নম্বর এবং মূলধনী আয়ের বিস্তারিত তথ্যও ভারতের হাতে তুলে দিয়েছেন সুইস কর্তৃপক্ষ।