সিপিএল: বিস্ফোরক ব্যাটিংয়ে নতুন স্বাদ পেলেন পুরান

23

বিশ্বজুড়ে টি-টোয়েন্টি লিগগুলোয় এখন বেশ কাক্সিক্ষত নাম নিকোলাস পুরান। ওয়েস্ট ইন্ডিজ টি-টোয়েন্টি দলেরও তিনি গুরুত্বপূর্ণ অংশ। তবে টি-টোয়েন্টিতে সেঞ্চুরি ছিল না বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যানের। ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (সিপিএল) বিস্ফোরক ব্যাটিংয়ে সেই স্বাদ এবার পেয়ে গেলেন পুরান। নিজের প্রথম সেঞ্চুরিতে গায়ানা অ্যামাজন ওয়ারিয়র্সেকে এনে দিলেন দারুণ জয়।সিপিএলে রোববার দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস প্যাট্রিয়টসের বিপক্ষে ৪৫ বলে অপরাজিত ১০০ রানের এই ইনিংস খেলেছেন পুরান।

ইনিংসে চার ৪টি, ছক্কা ১০টি! এক পর্যায়ে অবশ্য সেঞ্চুরিটা ধরাছোঁয়ার একটু বাইরেই মনে হচ্ছিল। দলের জয়ের জন্য যখন প্রয়োজন ১৬ রান, শতরানের জন্য তখন তার লাগে ১৮ রান। কিউই লেগ স্পিনার ইশ সোধির বলে টানা তিন ছক্কায় দলের জয় আর নিজের সেঞ্চুরি, পুরান পূরণ করেন দুটোই। ত্রিনিদাদে এই ম্যাচের উইকেট ব্যাটিংয়ের জন্য সহজ ছিল না মোটেও। এই পিচেই দিনের প্রথম ম্যাচে ৯২ রানের পুঁজি নিয়েও নাটকীয় জয় পেয়েছিল সেন্ট লুসিয়া জুকস। পরের ম্যাচে ১৫১ রান তাড়ায় পুরানের দল গায়ানাও ছিল বিপদে। ২৫ রানেই তারা হারিয়ে ফেলেছিল ৩ উইকেট।

এরপরই দৃশ্যপটে পুরান। পাঁচে নেমে বদলে দেন পুরো চিত্র। রস টেইলরের সঙ্গে তার জুটি জিতিয়ে দেল দলকে। তবে টেইলর ছিলেন স্রেফ দর্শকের ভূমিকায়। ৭১ বলে ১২৮ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটিতে টেইলরের অবদান ২৭ বলে অপরাজিত ২৫। পুরান মেরেছেন বিশাল সব ছক্কা। লং অফ, মিড উইকেট বাউন্ডারি পেরিয়ে গেছেন অনায়াসেই। ২৫ বলে ছুঁঙেছিলেন ফিফটি, পরের পঞ্চাশ এসেছে ২০ বলে। তার বিধ্বংসী ব্যাটিংয়ে গায়ানা জিতেছে ৭ উইকেটে।