সপ্তাহজুড়ে শীতের দাপট অব্যাহত থাকবে

13

শৈত্যপ্রবাহের হাত ধরে স্বাগত জানাল খ্রিষ্টীয় নতুন বছর ২০২২। মূলত সদ্যবিদায়ী বছরের শেষ দিনেই উত্তরের দুই জেলায় শৈত্যপ্রবাহ বইতে শুরু করে।
আবহাওয়াবিদরা জানিয়েছেন, আগামী ৫ থেকে ৬ জানুয়ারি অর্থাৎ সপ্তাহজুড়ে থাকতে পারে শীতের দাপট, কারণ এ সময়ে তাপমাত্রা টানা কমাতে পারে।
শনিবার দেশের পঞ্চগড় ও মৌলভীবাজার- এই দুটি জেলায় শৈত্যপ্রবাহ বইছে। এটা চলতি শীত মৌসুমে দ্বিতীয় দফায় শৈত্যপ্রবাহ। এর আগে ১৯ ডিসেম্বর ১০ জেলায় মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের শৈত্যপ্রবাহ হয়। কিন্তু দুই দিনের ব্যবধানে তা দূরও হয়ে যায়।
আবহাওয়া অধিদপ্তরের তথ্যানুযায়ী, তাপমাত্রা ৮ থেকে ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে থাকলে তাকে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ, ৬ থেকে ৮ ডিগ্রির মধ্যে থাকলে মাঝারি শৈত্যপ্রবাহ বলে। আর তাপমাত্রা ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে নেমে গেলে তাকে বলে তীব্র শৈত্যপ্রবাহ।
গত শুক্রবার দেশের কুড়িগ্রাম ও পঞ্চগড়ে তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে নেমে যায়। সেদিন পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ৮ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলয়িসাস, কুড়িগ্রামের রাজারহাটে ছিল ৯ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস।
গতকাল শনিবার ছিল পৌষের ১৭ তারিখ। এদিন সকালে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে তেঁতুলিয়ায় ৯ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ৯ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ঢাকায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৫ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস।
গতকাল শনিবার সকালে রাজারহাটে তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রির ওপরে ওঠে শৈত্যপ্রবাহ দূর হয়েছে জানিয়ে আবহাওয়াবিদ শাহীনুল ইসলাম বলেন, তবে শ্রীমঙ্গলে তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রির নিচে নেমে গেছে। শনিবার পঞ্চগড় ও মৌলভীবাজারে শৈত্যপ্রবাহ বইছে। তিনি বলেন, আগামী ৫/৬ জানুয়ারি পর্যন্ত তাপমাত্রা কমার ধারা অব্যাহত থাকার সম্ভাবনা রয়েছে। শৈত্যপ্রবাহ নতুন নতুন অঞ্চলে বিস্তৃতি লাভ করতে পারে। এ সময়ে শৈত্যপ্রবাহ মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের শৈত্যপ্রবাহ বইবে। তাপমাত্রা ৬ ডিগ্রির নিচে নামার অর্থাৎ শৈত্যপ্রবাহ তীব্র আকার ধারণ করার আশঙ্কা নেই। ৫ থেকে ৬ জানুয়ারির পর তাপমাত্রা একটু বাড়তে পারে।
গতকাল শনিবার সকাল ৯টা থেকে আগামী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে জানানো হয়েছে, আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারাদেশের আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। মধ্যরাত থেকে দেশের কোথাও কোথাও হালকা থেকে মাঝারি ধরনের কুয়াশ থাকতে পারে। এ সময়ে সারাদেশের রাতের তাপমাত্রা সামান্য কমতে পারে এবং দিনের তাপমাত্রা অপরিবর্তিত থাকতে পারে বলেও পূর্বাভাসে জানানো হয়েছে।