সপ্তম ব্যালন ডি’অরের রাজা লিওনেল মেসি

6

সব অপেক্ষার অবসান হলো। সবাইকে পেছনে ফেলে ২০২১ সালের ব্যালন ডি’অরের পুরস্কার জিতে নিলেন লিওনেল মেসি। প্যারিসে গত সোমবার দিবাগত রাতে জমকালো অনুষ্ঠানে মাধ্যমে আর্জেন্টাইন তারকার হাতে এবারের ব্যালন ডি’অরের পুরস্কার তুলে দিয়েছে ফরাসি সাময়িকী ‘ফ্রান্স ফুটবল’। রেকর্ড সপ্তমবার এই পুরস্কার জিতে ব্যালন ডি’অর রাজা এখন আর্জেন্টাইন তারকা। অবশ্য আগেও সর্বোচ্চবার ব্যালন ডি’অর জয়ের মালিক ছিলেন মেসি। এবার সেই সংখ্যাটাকে আরো উঁচুতে নিয়ে গেলেন পিএসজি সুপারস্টার।

এই পুরস্কার জেতাতে মেসির ধারে কাছেও নেই এখন। মেসির পর দ্বিতীয় সংখ্যকবার এই পুরস্কার পাঁচবার জিতেছেন শুধু ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। পাঁচবার ব্যালন ডি’অর জেতা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো এবার ষষ্ঠ হয়েছেন। ব্যালন ডি’অরের সংক্ষিপ্ত পাঁচজনের তালিকায় মেসির সঙ্গে ছিলেন রবার্তো লেভানদোভস্কি, জর্জিনিও, করিম বেনজেমা ও এনগোলো কন্তে। এই পাঁচ খেলোয়াড়ের মধ্যে সাংবাদিকদের সর্বোচ্চ ভোট পেয়ে পুরস্কারটি জেতেন মেসি। দ্বিতীয় হয়েছেন বায়ার্ন মিউনিখের পোলিশ স্ট্রাইকার লেভানদোভস্কি। তৃতীয় হয়েছেন চেলসির ইটালিয়ান মিডফিল্ডার জর্জিনিও। ক্লাব ফুটবলে মৌসুমটা বার্সেলোনার ভালো না কাটলেও মেসি নিজে ছিলেন উজ্জ্বল।

লা লিগায় সর্বোচ্চ ৩০ গোল করে রেকর্ড অষ্টমবারের মতো পিচিচি ট্রফি জিতে নেন তিনি। এরপর গত আগস্টে ২১ বছরের সম্পর্ক ছিন্ন করে এসেছেন পিএসজিতে। সেখানে গিয়ে অবশ্য এখানেও নিজেকে ঠিকঠাক মেলে ধরতে পারেননি। জাতীয় দলেও মেসি ছিলেন এবার অনন্য। আন্তর্জাতিক ফুটবলে দেশের ২৮ বছরের শিরোপার খরা কাটালেন তিনি। তাঁর অধীনেই লম্বা সময় অপেক্ষার পর কোপা আমেরিকার শিরোপা ঘরে তুলেছে আর্জেন্টিনা। আর্জেন্টিনাকে শিরোপা এনে দিয়ে আরেকবার ব্যালন ডি’অরের মর্যাদা অর্জন করলেন মেসি। পুরস্কার হাতে নিয়ে মেসি বলেন, ‘এখানে আবার আসতে পারাটা অবিশ্বাস্য। দুই বছর আগেও ভেবেছিলাম এবারই শেষ। কোপা আমেরিকা জয়ই চাবিকাঠি।’ নারী ফুটবলে এই বছরের ব্যালন ডি’অর জিতেছেন আলেকজিয়া পুতেয়াস। গত মৌসুমটা বার্সেলোনার হয়ে দারুণ খেলেছেন তিনি। তাইতো পুরস্কারও উঠল তাঁর হাতে।