সদর উপজেলার ১৪ ইউনিয়নে ভোট : নির্বাচনী সরঞ্জাম পৌঁছে গেছে কেন্দ্রে ভোটগ্রহণে প্রস্তুত কর্মকর্তারা

21

পঞ্চম ধাপে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার ১৪টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান, সংরক্ষিত ও সাধারণ ওয়ার্ড সদস্য পদে আগামীকাল বুধবার ভোট গ্রহণ। আজ মঙ্গলবার নির্বাচনী সরঞ্জাম নিয়ে ভোট কেন্দ্রগুলোয় পৌঁছে গেছেন ভোটগ্রহণ কর্মকর্তারা। ভোটকেন্দ্রগুলোর নিরাপত্তায় র‌্যাব-বিজিবি, আনসার-ভিডিপিসহ পর্যাপ্তসংখ্যক পুলিশ সদস্য মোতায়েন থাকবে। থাকবেন জুডিসিয়াল ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটগণ।
আজ মঙ্গলবার সকাল থেকে ভোটগ্রহণ কর্মকর্তারা সদর উপজেলা পরিষদ চত্বরে উপস্থিত হন। সেখানে থাকা সদর উপজেলা নির্বাচন অফিসার মাহবুবুল কবীরসহ রিটার্নিং অফিসারদের কাছ থেকে নির্বাচনী সরঞ্জামসহ পুলিশ ও আনসার-ভিডিপির সদস্যদের সঙ্গে নিয়ে বেলা ১১টা থেকে কেন্দ্রগুলোয় যাত্রা শুরু করেন ভোটগ্রহণ কর্মকর্তারা। দুর্গম পথের কারণে প্রথমে আলাতুলি ও নারায়ণপুর ইউনিয়নের ভোটগ্রহণ কর্মকর্তারা যাত্রা শুরু করেন।
মাহবুবুল কবীর বলেন, দুর্গম এলাকা হওয়ায় শুধুমাত্র আলাতুলি ও নারায়ণপুর ইউনিয়নের অন্যান্য নির্বাচনী সরঞ্জামের সঙ্গে ব্যালট পেপারও দেয়া হয়। অন্য ইউনিয়নগুলোয় আগামীকাল বুধবার সকালে ব্যালট পেপার পাঠানো হবে। তিনি বলেন- আগামীকাল সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ব্যালোটের মাধ্যমে ভোটারগণ তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। ১৩৪টি ভোট কেন্দ্রে ভোটার রয়েছেন ২ লাখ ৬৭ হাজার ৪৩৫ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১ লাখ ৩৫ হাজার ২৪১ জন এবং নারী ভোটার ১ লাখ ৩২ হাজার ১৯৪ জন।
তিনি জানান, ভোটগ্রহণ কর্মকর্তা হিসেবে ১৩৪ জন প্রিজাইডিং অফিসার. সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার ৭৯০ জন এবং ১ হাজার ৫৮০ জন পোলিং অফিসার নিয়োগ করা হয়েছে। অন্তত ২ হাজার আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য নিরাপত্তার দায়িত্বে নিয়োজিত থাকবেন জানিয়ে তিনি আরো জানান, এবার চেয়ারম্যান পদে ৬৫ জন, ৪২টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ১৭৩ জন এবং ১২৬টি সাধারণ ওয়ার্ড সদস্য পদে ৫৪৯ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।
ইউনিয়নগুলো হচ্ছে- বালিয়াডাঙ্গা, গোবরাতলা, বারঘরিয়া, মহারাজপুর, সুন্দরপুর, রানীহাটি, নারায়ণপুর, চরবাগডাঙ্গা, শাহজাহানপুর, ইসলামপুর, দেবীনগর, আলাতুলি, চরঅনুপনগর ও ঝিলিম।
চাঁপাইনবাবগঞ্জের পুলিশ সুপার এএইচএম আবদুর রকিব বলেন-ভোট কেন্দ্রগুলোর নিরাপত্তায় র‌্যাব-বিজিবি, আনসার-ভিডিপিসহ পর্যাপ্তসংখ্যক পুলিশ সদস্য মোতায়েন থাকবে। থাকবেন জুডিসিয়াল ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটগণ। অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্য আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী কঠোরভাবে দায়িত্ব পালন করবে।