সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তা দিতে বিএনপি রক্ষাকবচের কাজ করবে : রিজভী

47

gourbangla logoবিএনপি ধর্মীয় মূল্যবোধে বিশ্বাসী- উল্লেখ করে সংখ্যালঘুদের জন্য রক্ষাকবচ হওয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। তিনি বলেন, প্রত্যেকে তার ধর্ম পালন করবে। তাদের নিরাপত্তা দিতে বিএনপি রক্ষাকবচের কাজ করবে। বিএনপি’র কাজ হবে ভলান্টিয়ারের মত। গতকাল সোমবার রাজধানীর ইনস্টিটিউশন অব ইঞ্জিনিয়ার্সে অনুষ্ঠিত এক বিক্ষোভ সমাবেশে তিনি এ সব কথা বলেন। বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলের সাবেক সভাপতি হাবিব উন নবী খান সোহেলের মুক্তির দাবিতে এ বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করে জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দল। রুহুল কবির রিজভী বলেন, আজ ছাত্রলীগের নেতা কর্মীরা দিনে দুপুরে খুন-ধর্ষণের মত অপরাধ করেই যাচ্ছে। কিন্তু তারা বীরের মত ঘুরছে। তখন কেথায় থাকেন শেখ হাসিনা, কোথায় থাকে দেশের নিরাপত্তা। সমাবেশে রিজভী বলেন, ভোট কেড়ে নিতে যারা সবসময় ব্যস্ত থাকে তাদের কাছ থেকে আর যাই হোক জনগণের নিরাপত্তা আশা করা যায় না। তিনি বলেন, আমরা এরশাদের আমলেও স্বৈরশাসন দেখেছি। তখনও মামলা হয়েছে আমাদের বিরুদ্ধে। আমরাও হাজিরাও দিয়েছি। কিন্তু এই স্বৈরাচারী সরকারের আমলে আমরা আদালতে যাওয়ার আগেই সরকারের গোয়েন্দারা হাজির হয়। যেন আমরা হাজির না হলেও জেলে পুরে দেবে। সকালে উঠে নাস্তা করার বদলে আমাদের আদালতে দরজায় গিয়ে বসে থাকতে হয়। বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব বলেন, মাঝে মাঝে প্রধান বিচারপতির বক্তব্য শুনে মনে হয় তিনিও এ সরকারের নির্যাতনের শিকার। সরকারের চাপের মুখে কত কিছুই না তাকে করতে হচ্ছে। দলের সব নেতাকর্মীদের এক হওয়ার আহ্বান জানিয়ে তিনি আরো বলেন, বিএনপি মানবতার পক্ষে, মুক্তির পক্ষে। এই সরকারকে হঠাতে সংগ্রামের পতাকা নিয়ে আমাদের এগিয়ে যেতে হবে। বিক্ষোভ সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। আয়োজক সংগঠনের সভাপতি শফিউল বারী বাবুর সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি আজিজুল বারী হেলাল, স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদের ভুঁইয়া জুয়েলসহ বিএনপির অন্যান্য নেতাকর্মীরা।