দৈনিক গৌড় বাংলা

শুক্রবার, ১৭ই মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৩রা জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৯ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

শেষ চারে যেতে আত্মবিশ্বাসী এনরিকে

ঘরের মাঠে প্রথম দেখায় হেরে গেলেও ইউরোপ সেরার মঞ্চে টিকে থাকার ব্যাপারে দারুণ আত্মবিশ্বাসী লুইস এনরিকে। স্প্যানিশ এই কোচ নিশ্চিত, ফিরতি লেগে বার্সেলোনাকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ চারে জায়গা করে নেবে পিএসজি। বার্সেলোনায় মঙ্গলবার রাতে সেমি-ফাইনালে যাওয়ার লড়াইয়ে মুখোমুখি হবে এনরিকের সাবেক ও বর্তমান দল। মাঠের লড়াই শুরু হবে বাংলাদেশ সময় রাত ১টায়। প্যারিসে রোমাঞ্চ ছড়ানো ম্যাচে ৩-২ গোলে হেরেছিল পিএসজি। ২০১৫ সালে বার্সেলোনার সবশেষ চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়ের সময় ডাগআউটে ছিলেন এনরিকে। সোমবার সংবাদ সম্মেলনে বলেন তার বিশ্বাস, স্প্যানিশ চ্যাম্পিয়নদের পেরিয়ে যাওয়ার সামর্থ্য পুরোপুরিই আছে পিএসজির। “আমরা পুরোপুরি বিশ্বাস করি যে, এখানে আমরা স্কোর লাইন পাল্টে দিতে পারব।

প্রথম ম্যাচে দুই দল প্রবল লড়াই করেছে। তবে আমাদের যেটা প্রাপ্য ছিল সেটার প্রতিফলন নেই ফলাফলে। ৩-২ স্কোর লাইনের অর্থ আমাদের এখানে জয়ের জন্য খেলতে হবে।” বার্সেলোনার মুখোমুখি হওয়ার আগে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ২৭ ম্যাচে অপরাজিত ছিল পিএসজি। ইউরোপ সেরার মঞ্চে নিজেদের প্রথম শিরোপার সন্ধানে থাকা দলটির ওই অজেয় যাত্রা থামার পর শঙ্কা আরও একবার শূন্য হাতে ফেরার। ফের বার্সেলোনার বিপক্ষে খেলার আগে বাড়তি বিশ্রাম পেয়েছে ফরাসি চ্যাম্পিয়নরা। চলতি সপ্তাহে খেলতে হয়নি ঘরোয়া লিগে। এনরিকে মনে করেন, শাভি এর্নান্দেসের দলের বিপক্ষে আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলতে এই বিশ্রাম খুব সহায়ক হবে। “আমরা প্রথম মিনিট থেকে ওদের চেপে ধরব আর ওরা নিজেদের খেলাটা খেলবে।

যখন আমাদের দখলে বল থাকবে, আমরা চাইব বেশি সম্ভব সুযোগ তৈরি করার।” “আগের ম্যাচের পরের দিনগুলো আমাদের জন্য খুব কঠিন ছিল। তবে ফুটবলে ভালো ব্যাপার একই প্রতিপক্ষের বিপক্ষে আরেকটি ম্যাচ আছে। আর এখন আমরা জানি, কি করতে হবে। আমরা খুব ভালো অবস্থায় আছি এবং আমরা তৈরি।” গুরুত্বপূর্ণ এই ম্যাচে পিএসজি ফিরে পাচ্ছে মরোক্কোর ডিফেন্ডার আশরাফ হাকিমিকে। তিনিও মনে করেন, পাঁচবারের চ্যাম্পিয়ন বার্সেলোনাকে পেরিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে টিকে থাকা সম্ভব। “আমরা এখানে এসেছি প্যারিসে জয় নিয়ে ফিরতে। অনেক আশা নিয়ে আমরা এখানে এসেছি। প্রথম লেগে যা হয়েছে সেটা বদলানোর আশা আমাদের। আমরা এখানে জিততে এসেছি। নিজেদের মধ্যে কথা বলেছি, পরস্পরকে অনুপ্রাণিত করেছি। আমরা ঐক্যবদ্ধ থাকতে চাই এবং জিততে চাই।”

About The Author

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *