শেখ হাসিনার দর্শন-সব মানুষের উন্নয়ন : জেলা প্রশাসক

15

জেলা প্রশাসক এ জেড এম নূরুল হক বলেছেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্র শেখ হাসিনা চান, দেশে কোনো গরীব থাকবে না, দরিদ্রতা থাকবে না, অসহায় থাকবে না, আশ্রয়হীন, গৃহহীন, ভাগ্যহীন থাকবে না, থাকবে না কোনো ভিক্ষুক। এ জন্যই আপনাদের মাঝে গাভী ও ছাগল বিতরণের ব্যবস্থা হয়েছে। আপনারা গাভী ও ছাগলগুলো পালন করে স্বাবলম্বী হবেন, ভিক্ষা করবেন না। কারণ, ভিক্ষাবৃত্তি মানুষের মর্যাদা ক্ষুন্ন করে। আমাদের মহানবী (সঃ) ভিক্ষাবৃত্তি পছন্দ করতে না। কাজেই আপনারা কোনোভাবেই আজ যা দেয়া হলো তা কাজে লাগিয়ে নিজের পায়ে দাঁড়াবেন।
রবিবার বিকেলে জেলার সদর উপজেলার মহারাজপুর ইউনিয়নে সদর উপজেলা প্রশাসন আয়োজিত বিনামূল্যে গাভী ও ছাগল বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি কথাগুলো বলেন।
শেখ হাসিনার দর্শন-সব মানুষের উন্নয়ন এ সেøাগানের কথা উল্লেখ করে জেলা প্রশাসক আরো বলেন-কোনো মানুষকে পিছনে ফেলে রেখে এসডিজির লক্ষে পৌঁছানো যাবে না। তাইতো সরকার নানান কর্মসূচির মাধ্যমে চেষ্টা করছেন দেশ থেকে ক্ষুধা ও দারিদ্র্য দূর করে জাতির পিতার সোনার বাংলা গড়ে তুলতে।
তিনি বলেন-জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বলেছেন, সকল মানুষকে অন্ন দিতে হবে, বস্ত্র দিতে হবে, সকল মানুষের আশ্রয় হবে, ভাগ্য বদল করতে হবে। তিনি বলেছিলেন এবং তাঁর মেয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সেটা বাস্তবায়নের লক্ষে কাজ করে যাচ্ছেন। আমাদের লক্ষ্য হলো আগামী ২০২১ সালের মধ্যে কোন মানুষ গৃহহীন থাকবে না, সকল ছেলেমেয়ে স্কুলে যাবে। স্কুল থেকে নিয়ে এসে ছেলেমেয়েদের কারখানায় কাজ করতে হবে না, শিশু শ্রম থাকবে না। আমরা আমাদের ছেলেমেয়েদের প্রাপ্ত বয়সের আগেই বিয়ে দিব না, কারণ এতে তার স্বাস্থ্যের ক্ষতি হয়, লেখাপড়া হয় না। মেয়েদের বিয়ের বয়স ১৮ বছর। এর আগে কেউ বিয়ে দিলে মেয়ের বাবা-মা, অভিভাবক শাস্তি পাবেন। আর ছেলেদের বিয়ের বয়স ২১ বছর। মাদক থাকবে না, জঙ্গিবাদ থাকবে না, ক্ষুধা থাকবে না।
সদর উপজেলার মহারাজপুর ইউনিয়নে ভিক্ষুক পুনর্বাসন এবং বিকল্প কর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষে উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে ১৮ জন ভিক্ষুককে ১টি করে গাভী ও ১২জনকে ২টি করে ২৪টি ছাগল প্রদান করা হয়। এ উপলক্ষে মহারাজপুর ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয় সংলগ্ন আম বাগানে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আলমগীর হোসেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন মহারাজপুর ইউনিয় পরিষদ চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ এজাবুল হক বুলি।