শিবগঞ্জে পদ্মা তীরে ফেলে যাওয়া লাশটি ভারতীয় নাগরিকের

62

sibgonjচাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে একটি মাইক্রোবাসে করে ফেলে যাওয়া লাশটির অবশেষে পরিচয় মিলেছে। নিহত ব্যক্তি ভারতের পার দেওয়ানপুর গ্রামের কাশিম শেখের ছেলে মানিকুল শেখ। সে ভারতের পার দেওয়ানপুর গ্রামের এক গরুর রাখাল বলে বিভিন্ন সূত্র জানিয়েছে।
পুলিশের হাতে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক শিবগঞ্জ উপজেলার সাতরশিয়া গ্রামের মৃত মোজাম্মেল হক ফাক্কুর ছেলে নিপুলের বরাত দিয়ে শিবগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক কামরুজ্জামান জানিয়েছেন শনিবার দুপুরে মাইক্রো যোগে লাশটি পদ্মা নদীতে ফেলে যাবার সময় পুলিশের অনুসন্ধানে সন্দেহমূলকভাবে জিঞ্জাসাবাদের জন্য আটক করা হয় মনাকষা ইউনিয়নের সাতরশিয়া গ্রামের নিপুল নামে এক ব্যক্তিকে। সে পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে জানায় নিহত ওই ব্যক্তির লাশ গোদাগাড়ী উপজেলার বকচর এলাকায় ভাসতে দেখে স্থানীয় জেলেরা লাশ উদ্ধার করে নিপুলকে লাশটি হস্তান্তরের জন্য অনুরোধ জানায়। খবর পেয়ে নিপুল লাশটি গ্রহণ করে তাদের কথা মত শিবগঞ্জ উপজেলার উজিরপুর গ্রামের ডাকাতপাড়া এলাকায় ফেলে রাখতে গিয়ে এলাকাবাসী দেখে ফেলায় পুলিশের হাতে আটক হয় নিপুল।
এস আই আরও জানান, এ ব্যাপারে বিজিবিকে বিষয়টি জানানো হয়েছে এবং অনুসন্ধানে বিষয়টি সত্য প্রমানিত হলে বিজিবি-বি এস এফের মাধ্যমে লাশ হস্তান্তরের প্রক্রিয়া গ্রহণ হবে।
এদিকে ময়না তদন্ত রির্পোটে অতিরিক্ত ঠান্ডায় পানিতে ডুবে মারা গেছে বলে লিখা হয়েছে।
এ ব্যাপারে শিবগঞ্জ থানার ওসি(তদন্ত) সারওয়ার রহমান জানান, ইতোমধ্যেই এ ব্যাপারে শিবগঞ্জ থানায় একটি সাধারণ ডায়রী করা হয়েছে এবং এ ব্যাপারে তদন্ত অব্যাহত রয়েছে। তবে লাশের কোথাও কোন আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি।
উল্লেখ্য, শনিবার দুপুরের দিকে  কয়েকজন  দুর্বৃত্ত  একটি মাইক্রোতে  করে একটি লাশ উজিরপুর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের অধীনস্ত বালুর ঘাট এলাকায় অজ্ঞাত এক ব্যক্তির লাশ নদীর তীরে বোল্ডারের উপরে ফেলে পালিয়ে গেলে পুলিশ খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে।