শিক্ষাকে যুগোপযোগী করতে সংশ্লিষ্টদের আরো সক্রিয় ভূমিকা রাখার পরামর্শ

19

শিক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভায় শিক্ষাকে কার্যকর ও যুগোপযোগী করতে সংশ্লিষ্ট সবাইকে আরো সক্রিয় ভূমিকা রাখার পরামর্শ দেয়া হয়েছে। কমিটির সভাপতি মো. আফছারুল আমীনের সভাপতিত্বে বৃহস্পতিবার সংসদ ভবনে এই সভা অনুষ্ঠিত হয়।
কমিটির সদস্য শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি, মহিবুল হাসান চৌধুরী, মো. আব্দুল কুদ্দুস, ফজলে হোসেন বাদশা, মো. আবদুস সোবহান মিয়া এবং গোলাম কিবরিয়া টিপু সভায় অংশগ্রহণ করেন।
সভায় সুনামগঞ্জ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় বিল, ২০২০ আরো পুঙ্খানুপুঙ্খরূপে পর্যবেক্ষণ করে প্রয়োজনীয় সংশোধন, সংযোজন, বিয়োজনসাপেক্ষে সংসদে উপস্থাপনের জন্য সুপারিশ করা হয়। শিক্ষার্থীদের নিরাপদ স্থানে শিক্ষার পরিবেশ তৈরি করতে দুর্বল বিল্ডিং চিহ্নিত করে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের পরিত্যক্ত ভবন অপসারণের বিষয়ে সভায় আলোচনা করা হয়। জেলা প্রশাসনের পাশাপাশি শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনস্থ দপ্তরের ওপর ন্যস্ত দায়িত্ব দ্রুত বাস্তবায়নের জন্য মন্ত্রণালয়কে জোরালো ভূমিকা পালনের সুপারিশ করা হয়। সভায় শিক্ষা ক্ষেত্রে পরিবর্তিত বা প্রস্তাবিত কারিকুলাম সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়।
সংসদীয় কমিটির সভায় জানানো হয়, উন্নত শিক্ষা ব্যবস্থা প্রণয়নের লক্ষে কারিগরি শিক্ষা কারিকুলামের প্রয়োজনীয়তা ও গুরুত্ব বিবেচনা করে একটি খসড়া প্রস্তুতের কার্যক্রম চলছে। এতে শিক্ষার উন্নয়ন কার্যক্রম ব্যবস্থা জোরদার করার উদ্দেশ্যে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সক্ষমতা বৃদ্ধির প্রতি গুরুত্বারোপ করা হয়। কারিগরি শিক্ষা প্রসারের উদ্দেশ্যে প্রতি উপজেলায় অন্তত একটি করে টেকনিক্যাল কলেজ স্থাপনের পরিকল্পনা রয়েছে। এ ক্ষেত্রে শিক্ষক স্বল্পতা নিরসনের লক্ষে শূন্য পদে নিয়োগের কার্যক্রম যথাশিগরিই শুরু হবে বলে সভায় উল্লেখ করা হয়। সভায় ক্লাস ফাঁকি দিয়ে কোচিং সেন্টারের মাধ্যমে সুবিধা গ্রহণকারী শিক্ষকদের ব্যাপারে সংশ্লিষ্টদের সতর্ক থাকার অনুরোধ করা হয়।
সভায় কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব, বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের প্রতিনিধি, মন্ত্রণালয় এবং সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।