শাকিব এসব অভিমানে বলছেন: বুবলী

4

জনপ্রিয় চিত্রনায়ক শাকিব খানের সঙ্গে চিত্রনায়িকা শবনম বুবলী আর একসঙ্গে থাকছেন না, তাঁদের ‘বিচ্ছেদ’ হয়েছে, বিয়ে ও বাচ্চার খবর যেদিন প্রকাশ্যে এসেছে সেদিনই সংবাদমাধ্যম জানিয়েছিল এই খবর। পরে শাকিব খানও বুবলীর সঙ্গে সম্পর্ক না থাকার কথা স্বীকার করেছেন। শাকিব খান বলছেন, ‘মানুষ কি দেখে বোঝে না, আমাদের দুজনের মধ্যে এখন কোনো সম্পর্ক নেই! তাদের তো এমনিতেই বোঝা উচিত এই দূরত্বের কথা। ৯ মাস আগে সে (বুবলী) আমেরিকা থেকে আসার পর তার সঙ্গে কোনো প্রকার যোগাযোগ নেই আমার। এর মানেটা কি জনে জনে সবাইকে গিয়ে বুঝিয়ে আসতে হবে?’ তবে বরাবরের মতোই শাকিব খানের সঙ্গে সম্পর্ক না থাকার খবর অস্বীকার করেছেন শবনম বুবলী। এবার এই নায়িকার দাবি, ‘বিচ্ছেদ’ ইস্যুতে শাকিব খান যে বক্তব্য দিয়েছেন তা অভিমানে। গণমাধ্যমকে দেওয়া বুবলীর ভাষ্য, ‘হয়তো সবকিছু মিলিয়ে বর্তমান প্রেক্ষাপট নিয়ে তিনি কিছুটা অভিমান থেকে বিরক্ত হয়েই এসব বলছেন। তাছাড়া শাকিব খান আমার সহকর্মী, স্বামী এবং আমার সন্তানের বাবা। তাই তার অসম্মান হয়, এ রকম অনেক কথাই আমি বলতে চাই না। কখনও বলিনি।’ শাকিব খান ২০০৮ সালের ১৮ এপ্রিল গুলশানের বাড়িতে কঠোর গোপনীয়তায় নিজের সর্বাধিক সিনেমার নায়িকা অপু বিশ্বাসকে বিয়ে করেন। প্রায় ১০ বছর পর এক সন্তানের খবরের সঙ্গে নিজেদের বিয়ের খবর টেলিভিশন লাইভে প্রকাশ্যে নিয়ে আসেন অপু। ফের একই কা- ঘটিয়েছেন ঢালিউড খান। এবার চিত্রনায়িকা শবনম বুবলীও এক সন্তানের খবরের সঙ্গে নিজেদের বিয়ের খবর প্রকাশ্যে নিয়ে এসেছেন ফেসবুক পোস্টে। শাকিব ২০১৮ সালের ২০ জুলাই বিয়ে করেন আরেক চিত্রনায়িকা শবনম বুবলীকে। গুঞ্জন ছিল, বুবলীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক থাকায় শাকিবের ঘরে নিজের সন্তান থাকার সংবাদ প্রকাশ্যে আনেন অপু। সেই হিসাবে অপুকে ডিভোর্সের ১৪৮ দিন পর বুবলীকে বিয়ে করেন শাকিব। আর সেই খবর বুবলী প্রকাশ্যে এনেছেন ১৫৩৬ দিন পর।