দৈনিক গৌড় বাংলা

মঙ্গলবার, ২৮শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১৪ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২০শে জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

লিপস্টিক ব্যবহার, ঠোঁট ও স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতি

সবার কাছে সুন্দরের সংজ্ঞা ভিন্ন হলেও সবাই নিজের নিজের মতো করে সুন্দর দেখতে পছন্দ করে। আর এই নিজেকে সুন্দর দেখানোর জন্য মানুষ বিভিন্ন পণ্য ব্যবহার করে,বিশেষ করে মেয়েরা। নতুন নতুন পণ্য ব্যবহার করে মেয়েরা তাদের মুখকে আরো সুন্দর ও যৌবন করে তোলার চেষ্টা করে। এই পণ্যগুলির মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় পণ্য হল লিপস্টিক। অনেক মেয়ে রয়েছে যাদের জন্য, লিপস্টিক পরা অভ্যাসে পরিণত হয়ে গেছে। কিন্তু আপনি কি জানেন প্রতিদিন ঠোঁটে লিপস্টিক লাগানো স্বাস্থ্য এবং শরীরের জন্য কতটা বিপজ্জনক? জেনে নিন প্রতিদিন লিপস্টিক লাগালে কীভাবে ঠোঁট ও স্বাস্থ্যের ক্ষতি হয়। অনেক ধরনের কেমিক্যাল দিয়ে তৈরি হয় লিপস্টিক, যা ঠোঁটের ক্ষতি করতে পারে।

অতিরিক্ত লিপস্টিক ব্যবহারের ফলে ঠোঁটের চামড়া শুকিয়ে যায়, যার কারণে ঠোঁটের চামড়া খসখসে হয়ে যায় এবং উঠতে থাকে। প্রতিদিন লিপস্টিক লাগালে ধীরে ধীরে ঠোঁট কালো হয়ে যায়। এ ছাড়া বারবার লিপস্টিক ব্যবহারের ফলে অ্যালার্জি হওয়ার সম্ভাবনাও থাকে। এমনকি প্রতিদিন লিপস্টিক লাগালে লিপস্টিকে ব্যবহৃত কেমিক্যাল স্বাস্থ্যের জন্য বিপজ্জনক। যদি লিপস্টিক লাগাতেই হয় তাহলে লিপস্টিক পরার আগে প্রথমে ঠোঁটে ভালো করে লিপবাম লাগিয়ে নিতে হবে, এর ফলে লিপস্টিকে ব্যবহৃত রাসায়নিক ঠোঁটে ঢুকতে পারবে না। বাড়ি ফেরার পর সঙ্গে সঙ্গে মেকআপ রিমুভার দিয়ে ভালো করে লিপস্টিক মুছে নিয়ে ফের লিপবাম লাগিয়ে নিতে হবে। বেশিক্ষণ ঠোঁটে লিপস্টিক লাগিয়ে রাখা উচিত নয়। প্রতিদিন ঠোঁটে নারকেল তেল, মধু বা অ্যালোভেরা জেল লাগালে ঠোঁট নরম থাকে। লিপস্টিক লাগানোর পর ঠোঁটে জ¦ালা বা অ্যালার্জির মতো সমস্যা হলে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নেয়া উচিত।

About The Author

This will close in 0 seconds