লা লিগার শিরোপা লড়াই জমে উঠেছে

12

মাস দুয়েক আগেও লা লিগার শিরোপা লড়াই মনে হচ্ছিল একপেশে। তবে বার্সেলোনা ও রিয়াল মাদ্রিদের ঘুরে দাঁড়ানো এবং আতলেতিকো মাদ্রিদের বারবার হোঁচট খাওয়ায় দৃশ্যপট পাল্টে গেছে। আর সবশেষ সেভিয়ার মাঠে দিয়েগো সিমেওনের দল হেরে যাওয়ায় স্পেনের শীর্ষ লিগের শেষটা জমজমাট এক লড়াইয়ের আভাস দিচ্ছে। গত রোববার রাতে সেভিয়ার বিপক্ষে আতলেতিকোর পারফরম্যান্স ছিল হতাশাজনক।

প্রথমার্ধে মাত্র ৩৪ শতাংশ সময় বল দখলে রাখা দলটি পিছিয়ে পড়তে পারতো শুরুতেই। ডি-বক্সে ইভান রাকিতিচকে একজন ফাউল করলে পেনাল্টি পায় সেভিয়া। তবে আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড লুকাস ওকাম্পোসের স্পট কিক রুখে দেন তারকা গোলরক্ষক ইয়ান ওবলাক। বিরতির পরও ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি আতলেতিকো। চাপ ধরে রেখে ৭০তম মিনিটে এগিয়ে যায় সেভিয়া। হেডে গোলটি করেন আর্জেন্টাইন মিডফিল্ডার মার্কোস আকুনা। শেষ পর্যন্ত ১-০ ব্যবধান ধরে রেখে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে স্বাগতিকরা।

লিগে সবশেষ ১০ ম্যাচে আতলেতিকোর এটি দ্বিতীয় হার, ড্র করেছে চারটি। এই সময়ে টানা দুটি জয়ের দেখা একবারও পায়নি তারা। অন্যদিকে, বার্সেলোনা সবশেষ হেরেছে গত ৫ ডিসেম্বর। তারপর থেকে টানা ১৮ ম্যাচ অপরাজিত আছে তারা; এই সময়ে তাদের জয় ১৫টি, ড্র তিনটি। আর রিয়াল সবশেষ হেরেছে গত ৩০ জানুয়ারি। এরপর তারা অপরাজিত আছে টানা ৯ ম্যাচে; জয় সাতটি, ড্র তিনটি। সেভিয়ার বিপক্ষে হারের পর ২৯ ম্যাচে ২০ জয় ও ছয় ড্রয়ে আতলেতিকোর পয়েন্ট ৬৬। ৩ পয়েন্ট কম নিয়ে দুইয়ে রিয়াল।

এক ম্যাচ কম খেলা বার্সেলোনা ৬২ পয়েন্ট নিয়ে তিন নম্বরে আছে। বাংলাদেশ সময় সোমবার রাত একটায় রিয়াল ভাইয়াদলিদের বিপক্ষে মাঠে নামবে রোনাল্ড কুমানের দল। ঘরের মাঠের ম্যাচটি জিতলে আতলেতিকোর সঙ্গে তাদের ব্যবধান কমে দাঁড়াবে মাত্র ১ পয়েন্ট। খুব বেশি পিছিয়ে নেই সেভিয়াও। ২৯ ম্যাচে ৫৮ পয়েন্ট নিয়ে চতুর্থ স্থানে আছে দলটি।