লাভজনক হতে পারে বারি বেগুন-১২

11

বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট উদ্ভাবিত বারি বেগুন-১২ কৃষকদের জন্য লাভজনক হতে পারে বলে মতামত দিয়েছেন কৃষি কর্মকর্তারা। এবারই প্রথমবারের মতো চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার বিভিন্ন জায়গায় পরীক্ষামূলকভাবে বেগুনের এই জাতটির চাষ করা হয়েছে।
নাচোল উপজেলা কৃষি অফিসার সলেহ আকরাম বলেন-গত বছর হর্টিকালচার সেন্টারের উপপরিচালক স্যারের মাধ্যমে ১ম এ জাতটির সঙ্গে পরিচিত হই। এরপর নাচোল উপজেলা কৃষি অফিসারের দায়িত্ব পাবার পর এ এলাকায় বারি বেগুন সম্প্রসারণের পরিকল্পনা করি। সেখান থেকেই এ বছর উপজেলার চানপাড়ায় কৃষক শফিকুল ইসলামকে চারা দেয়া হয়।
ইতোমধ্যে বেগুনের ক্ষেত পরিদর্শন করা হয়েছে। এই বেগুনের সর্বোচ্চ ওজন হয়েছে ১.২০০ কেজি। এই বেগুনের নমুনা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর, চাঁপাইনবাবগঞ্জর উপপরিচালক স্যার ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার স্যারকে দেখানো হয়েছে। কৃষকসহ যাঁরা এ বেগুন খেয়েছেন সকলেই এ জাতটির বিষয়ে খুবই ইতিবাচক মতামত দিয়েছেন। এই বেগন অত্যন্ত নরম ও সুস্বাদু। আগামীতে এটি উপজেলায় আরো সম্প্রসারণ করা হবে। তবে এ জাতটি চাষে পাখির হাত থেকে বাঁচাতে নেট ব্যবহার করতে হবে কারণ সুস্বাদু ও নরম হওয়ায় পাখির জন্যও খুব প্রিয়।