র‌্যাবের অভিযান শিবগঞ্জে সহযোগীসহ ভুয়া চিকিৎসক গ্রেপ্তার

13

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার ওমরপুর খোঁচপাড়া গ্রামে আদর্শ চিকিৎসালয়ে অভিযান চালিয়ে সহযোগীসহ কথিত ভুয়া ডাক্তার মো. মাসুম আলীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে র‌্যাব-৫, চাঁপাইনবাবগঞ্জ ক্যাম্প এই তথ্য জানিয়েছে।
র‌্যাব আরো জানায়, গ্রেপ্তারকৃতরা দেশের কিংবা বিদেশের স্বীকৃত কোনো মেডিকেল কলেজ হতে চিকিৎসা বিষয়ে কোনো ডিগ্রি অর্জন না করেই অননুমোদিতভাবে ডাক্তারি প্রেসক্রিপশন করে গরিব অসহায় রোগীদের নিকট হতে মোটা অঙ্কের টাকা হাতিয়ে নিচ্ছেন এবং বিগত কয়েক বছর ধরে ভুল চিকিৎসা দিয়ে আসছেন।
এক ভুক্তভোগীর অভিযোগের উদ্ধৃতি দিয়ে র‌্যাব আরো জানায়, ওই ভুক্তভোগী তার স্ত্রীর মাথার টিউমার অপারেশন করার জন্য কথিত ভুয়া ডাক্তার মো. মাসুম আলীর নিকট যায়। ডাক্তার টিউমার অপারেশন না করে সেখানে এসিড প্রয়োগ করলে রোগীর অবস্থা আশঙ্কাজনক হয়ে পড়ে। এ ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। বিষয়টি নিয়ে র‌্যাব সরেজমিনে তদন্তকালে সত্যতা পেলে গত বৃহস্পতিবার দুপুর দেড়টায় অভিযান চালিয়ে ভুয়া ডাক্তার মো. মাসুম আলী (৩২) এবং তার সহযোগী মো. আব্দুল মতিন (২০)কে র‌্যাবের একটি টহল দল গ্রেপ্তার করে।
অভিযানে নেতৃত্ব দেনÑ কোম্পানি অধিনায়ক লে. কমান্ডার রুহ-ফি-তাহমিন তৌকির ও কোম্পানি উপ-অধিনায়ক সহকারী পুলিশ সুপার মো. আমিনুল ইসলাম। এসময় ২টি প্রেসক্রিপশন প্যাড, ১ সেট এনালগ বিপি মেশিন, ১টি টুল বক্স, ১১টি কাঁচি, ১টি ভুয়া প্রেসক্রিপশন, ১টি ওষুধ ক্রয়ের ভাউচার জব্দ করা হয়।
মো. মাসুম আলী ওমরপুর খোঁচপাড়া গ্রামের মো. শফিকুল ইসলাম ওরফে সুফিয়ানের ছেলে এবং মো. আব্দুল মতিন শ্যামপুর টিকোশ গ্রামের মো. একরামুল হকের ছেলে।