দৈনিক গৌড় বাংলা

রবিবার, ২১শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৬ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৫ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

রোনালদো জানালেন, ‘এটাই শেষ ইউরো’

বয়স ৩৯ হয়ে গেলেও খেলে যাচ্ছেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। কবে নাগাদ বুটজোড়া তুলে রাখবেন- সে বিষয়ে এখনও জানাননি। তবে চলতি ইউরো টুর্নামেন্টই যে পর্তুগিজ যুবরাজের শেষ সেটা নিশ্চিত করেছেন। শেষ ষোলোয় স্লোভেনিয়ার বিপক্ষে টাইব্রেকারে জয়ের পর সংবাদ মাধ্যমকে সিআরসেভেন বলেছেন, ‘এটা নিশ্চিতভাবেই আমার শেষ ইউরো।’ ষষ্ঠ ইউরো খেলতে নামা রোনালদো চলতি টুর্নামেন্টে নিজেকে সেভাবে মেলে ধরতে পারেননি। স্লোভেনিয়ার বিপক্ষে অতিরিক্ত সময়েও পেনাল্টি মিস করেছেন। ভাগ্য ভালো এর খেসারত দিতে হয়নি শেষ পর্যন্ত। শুটআউটে শেষ হাসি হেসেছে পর্তুগাল। ক্যারিয়ার নিয়ে বড় সিদ্ধান্ত দেওয়ার পর রোনালদো বলেছেন, ‘তাই বলে আমি আবেগতাড়িত হয়ে পড়ছি না। আমি আবেগ তাড়িত হই ফুটবল যেসব বিষয়ে সম্পৃক্ত। যেমন ফুটবল নিয়ে আমার উদ্দীপনা, দর্শকদের উত্তেজনা এবং আমার পরিবার ও ভক্তদের ভালোবাসা।’ শেষ ষোলোয় পেনাল্টি মিসের পর রোনালদো মাঠেই কান্নায় ভেঙে পড়েছিলেন। তাকে সান্ত¡না দিতে ছুটে আসতে হয় সতীর্থদের। তার পর অবশ্য শুটআউটে জাল কাঁপাতে পেরেছিলেন তিনি। শেষ পর্যন্ত পর্তুগাল গোলকিপার ডিয়েগো কস্তার তিনটি সেভে পর্তুগাল কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করেছে। ওই সময় কান্নায় ভেঙে পড়ার ব্যাখ্যায় পর্তুগিজ এই ফরোয়ার্ড বলেছেন, ‘শুরুতে দুঃখ, তার পর আনন্দ। ফুটবল আসলে এটাই দেয় সব সময়। যেসব মুহূর্তের আসলে কোনো ব্যাখ্যা হয় না। আমার সামনে সুযোগ ছিল দলকে এগিয়ে নেওয়ার। কিন্তু পারিনি। ওবলাক দারুণ সেভ করেছে। আমাকে পেনাল্টিটা আবার দেখতে হবে। কারণ পুরো বছর একটি পেনাল্টিও মিস করিনি। বিশেষ করে যখন নাকি সেটা খুব প্রয়োজন। শেষ পর্যন্ত ওবলাক সেভ করেছে।’

About The Author