দৈনিক গৌড় বাংলা

রবিবার, ১৪ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৩০শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৮ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

রেকর্ড গড়লো আর্শদিপ

ম্যাচের প্রথম বলেই উইকেট, ওভারের শেষ বলে আরেকটি। পরে আরও দুটি শিকার ধরলেন আর্শদিপ সিং। উপহার দিলেন দুর্দান্ত বোলিং। ভারতীয় পেসারের নাম উঠে গেল রেকর্ড বইয়ে। নিউ ইয়র্কে বুধবার যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে ৪ ওভারে ¯্রফে ৯ রানে ৪ উইকেট নেন আর্শদিপ। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ম্যাচে ভারতীয় কোনো বোলারের সেরা বোলিং এটিই। আর্শদিপ ভেঙে দিয়েছেন রবিচন্দ্রন অশ্বিনের রেকর্ড। ২০১৪ আসরে মিরপুরে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ১১ রানে ৪ উইকেট নিয়েছিলেন অফ স্পিনার অশ্বিন। নাসাউ কাউন্টি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে বোলিং নেয় ভারত। ম্যাচের প্রথম বলে শায়ান জাহাঙ্গিরকে এলবিডব্লিউ করে দলকে সাফল্য এনে দেন আর্শদিপ। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ম্যাচের প্রথম বলে উইকেট নেওয়া চতুর্থ বোলার তিনি। ২০১৪ আসরে আফগানিস্তানের বিপক্ষে বাংলাদেশের মাশরাফি বিন মুর্তজা, একই আসরে হংকংয়ের বিপক্ষে আফগানিস্তানের শাপুর জাদরান এই কীর্তি গড়েন। এছাড়া নামিবিয়ার রুবেন ট্রাম্পেলমান এই স্বাদ পান দুই দফায়, ২০২১ আসরে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে এবং চলতি আসরে ওমানের বিপক্ষে। ওভারের শেষ বলে ক্যাচ দিয়ে বিদায় নেন আন্দ্রিয়েস হাউস। প্রথম ওভারে ৩ রানে উইকেট দুটি নেন আর্শদিপ। পাওয়ার প্লেতে আরেকটি ওভার বোলিং করে তিনি দেন ১ রান। পঞ্চদশ ওভারে বোলিংয়ে ফিরে আবারও দেন ১ রান, সঙ্গে নেন নিতিশ কুমারের উইকেট। তার বোলিং ফিগার তখন ৩-০-৫-৩! কোটার শেষ ওভারে ৪ রান দিয়ে হারমিত সিংয়ের উইকেট নেন ২৫ বছর বয়সী এই পেসার। এই সংস্করণে তার ক্যারিয়ার সেরা বোলিংও এটি। ২০২২ সালে নেপিয়ারে নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে ৩৭ রানে ৪ উইকেট ছিল আগের সেরা। আর্শদিপের দারুণ বোলিংয়ে ২০ ওভারে ৮ উইকেটে ১১০ রানের বেশি করতে পারেনি যুক্তরাষ্ট্র।

About The Author