রাশিয়ার সঙ্গে সামরিক মহড়ায় ভারত-চীন

2

চীন ও ভারতসহ কয়েকটি দেশের অংশগ্রহণে রাশিয়ায় গতকাল বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হচ্ছে সামরিক মহড়া। এ নিয়ে গভীর উদ্বেগ জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। এক বিবৃতিতে হোয়াইট হাউস জানায়, রুশ-ইউক্রেন যুদ্ধের মধ্যে এই যৌথ মহড়ার বিষয়টিকে গুরুত্বের সঙ্গে পর্যবেক্ষণ করছে বাইডেন প্রশাসন। ভারত-চীন ছাড়াও বেলারুশ, মঙ্গোলিয়া, তাজিকিস্তান, সিরিয়া, লাওস ও নিকারাগুয়ার মতো দেশগুলো এতে অংশ নেবে। ‘ভোস্তক ২০২২’ শীর্ষক এই মহড়ার আয়োজন করেছে রাশিয়া। এতে অংশ নেয়ার শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি চলছে সামরিক বাহিনীগুলোর। রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, যৌথ এই মহড়ায় অর্ধলক্ষাধিক সেনাসদস্য অংশ নেবে। এ ছাড়া দেড় শতাধিক যুদ্ধবিমান, ৬০টি যুদ্ধজাহাজ মহড়ায় অংশ নেয়ার কথা রয়েছে।

চীনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের তরফ থেকে রাশিয়ার উদ্যোগে আয়োজিত এই মহড়ায় অংশ নেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। বেইজিং বলছে, যৌথ মহড়ায় অংশ নিতে তারা রাশিয়ায় ১০ হাজারের বেশি সেনা পাঠাচ্ছে। পূর্ব লাদাখে চীনের সঙ্গে সীমান্ত উত্তেজনার মধ্যেই ভারতীয় সামরিক বাহিনীও এতে যোগ দিচ্ছে বলে নিশ্চিত করেছে দিল্লি। তবে বেইজিং বলছে, এই যৌথ মহড়ায় চীনের অংশগ্রহণের সঙ্গে বর্তমান আন্তর্জাতিক ও আঞ্চলিক পরিস্থিতির কোনো সম্পর্ক নেই। এদিকে আসন্ন এই যৌথ সামরিক মহড়ার বিষয়টি নিয়ে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। এক বিবৃতিতে হোয়াইট হাউস জানিয়েছে, রুশ-ইউক্রেন যুদ্ধের মধ্যে এই মহড়া আয়োজন এবং ভারত-চীনের অংশগ্রহণ এর গুরুত্ব আরও বাড়িয়ে দিয়েছে। বিষয়টিকে বাইডেন প্রশাসন গুরুত্বসহকারে পর্যবেক্ষণ করছে বলেও জানিয়েছে ওয়াশিংটন।