রান বন্যার টেস্টে পাকিস্তানের বিপক্ষে রোমাঞ্চকর জয় ইংল্যান্ডের

7

রাওয়ালপিন্ডিতে সিরিজে রান বন্যার প্রথম টেস্টে পাকিস্তানের বিপক্ষে রোমাঞ্চকর এক জয়ের স্বাদ পেয়েছে সফরকারী ইংল্যান্ড। ম্যাচে মোট রান উঠেছে ১৭৬৮। পঞ্চম দিনের চা-বিরতির পর শেষ সেশনে বোলারদের ভেল্কিতে ইংল্যান্ড ৭৪ রানে হারিয়েছে পাকিস্তানকে। রান বন্যার টেস্ট জিতে তিন ম্যাচ সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেল ইংল্যান্ড। মাচের চার ইনিংসে মোট ১৭৬৮ রান হয়েছে। দুই ইনিংসে ইংল্যান্ড যথাক্রমে ৬৫৭ ও ২৬৪ এবং পাকিস্তান ৫৭৯ ও ২৬৮ রান করে। টেস্ট ইতিহাসে কোন ম্যাচে সবচেয়ে রানের দিক দিয়ে এটি তৃতীয়স্থানে জায়গা করে নিয়েছে। এতে পেছনে পড়ে গেল ৬৯ বছরের আগের পুরনো রেকর্ড। ৩৪৩ রানের টার্গেটে চতুর্থ দিন শেষে ২ উইকেটে ৮০ রান করেছিলো পাকিস্তান। টেস্টটি জিততে ম্যাচের পঞ্চম ও শেষ দিন পাকিস্তানের দরকার ছিলো ২৬৩ রান। ইংল্যান্ডের প্রয়োজন ছিলো ৮ উইকেট। ৪৩ রান নিয়ে দিন শুরু করে ৪৮ রানে বিদায় নেন ইমাম উল হক। মিডল-অর্ডারে সাউদ শাকিলের হাফ-সেঞ্চুরি ও মোহাম্মদ রিজওয়ানের ৪৬ রানের কল্যাণে ম্যাচ জয়ের পথে ভালোভাবে টিকে থাকে পাকিস্তান। ২৪ রান নিয়ে খেলতে নেমে ১২টি চারে ৭৬ রান করেন শাকিল। রিজওয়ান ৪৬ রান করেন। ৫ উইকেটে ২৫৭ রান নিয়ে শেষ দিনের চা-বিরতিতে যায় পাকিস্তান। তখন হাতে ৫ উইকেট নিয়ে ৮৬ রান দরকার ছিলো পাকদের। উইকেট ছিলেন সেট ব্যাটার আজহার আলি ও আঘা সালমান। আজহার ৩৭ ও সালমান ৩০ রানে অপরাজিত ছিলেন। বিরতি থেকে ফিরেই পাকিস্তানের ব্যাটিং লাইন-আপে ধস নামে। ইংল্যান্ডের দুই পেসার জেমস এন্ডারসন ও ওলি রবিসনের তোপে ১১ রানে শেষ ৫ উইকেট হারায় তারা। ২৬৮ রানে গুটিয়ে ম্যাচ হারে পাকিস্তান। আজহার ৪০ ও সালমান ৩০ রান করে আউট হন। লোয়ার-অর্ডারে কোন ব্যাটারই দুই অংকের কোটা স্পর্শ করতে পারেনি। বল হাতে এন্ডারসন ৩৬ রানে ৪টি ও রবিনসন ৫০ রানে ৪ উইকেট নেন। ম্যাচ সেরা হন রবিনসন। এই টেস্টের প্রথম দিন ১১২ বছরের পুরনো বিশ^ রেকর্ড ভাঙে ইংল্যান্ড। চার ব্যাটারের সেঞ্চুরিতে প্রথম দিন ৭৫ ওভার ব্যাট করে ৪ উইকেটে ৫০৬ রান করেছিলো ইংল্যান্ড। টেস্ট ইতিহাসে কোন ম্যাচের প্রথম দিন সর্বোচ্চ রানের বিশ^ রেকর্ড এটি। আগামী ৯ ডিসেম্বর মুলতানে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টে আবারও মুখোমুখি হবে পাকিস্তান ও ইংল্যান্ড।