রাজশাহীতে বাংলাদেশ-ভারত ৫ম সাংস্কৃতিক মিলনমেলা শুরু

17

রাজশাহীতে চার দিনের বাংলাদেশ-ভারত ৫ম সাংস্কৃতিক মিলনমেলা শুরু হয়েছে গতকাল শুক্রবার। এই মিলনমেলায় যোগ দিতে এরই মধ্যে ভারতীয় প্রতিনিধি দল সোনামসজিদ স্থলবন্দর দিয়ে বাংলাদেশে এসেছেন।

 শুক্রবার সোনামসজিদ স্থলবন্দরে ভারতীয় প্রতিনিধি দলকে স্বাগত জানিয়েছে চাঁপাইনবাবগঞ্জ ও রাজশাহীর আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ। দুপুরে সোনামসজিদ ইমিগ্রেশনে প্রতিনিধি দলকে বাংলাদেশের পক্ষ হতে স্বাগত জানানো হয়। প্রতিনিধি দলটি সোনামসজিদ জিরো পয়েন্ট এলাকায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরালে এবং পরে ছোট সোনামসজিদ প্রাঙ্গণে বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীরের সমাধিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

শুক্রবার দুপুরে ৩১ জনের একটি প্রতিনিধি দল সোনামসজিদ ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করেন। ভারতীয় দলের সমন্বয়ক তপশ্রী গুপ্ত এক প্রতিক্রিয়ায় দুই দেশের চলমান এ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান বন্ধুত্ব বাড়াতে ভূমিকা রাখবে জানিয়ে বলেন, এর আগে ২০১৩ সালে প্রথম এ ধরনের একটি সাংস্কৃতিক মিলনমেলা অনুষ্ঠিত হয়। গভীর রাত পর্যন্ত এ অনুষ্ঠান ছিল ২ দেশের সেতুবন্ধন। এরই ধারাবাহিকতায় ফ্রেন্ডস অব বাংলাদেশের পক্ষ থেকে এবার রাজশাহীতে একই ধরনের অনুষ্ঠান হতে যাচ্ছে। তিনি আরো বলেন, প্রতিবছরই আমরা পরম আতিথিয়তায় মুগ্ধ হই। আমরাও চাই ভারতে বাংলাদেশের এ ধরনের ধারাবাহিক আয়োজন চালু হোক। কিছু ভালো অনুষ্ঠান আমরা বাংলাদেশী জনগণকে যেমন উপহার দিতে পারব, তেমনি আমরাও কিছু এখান থেকে শিক্ষা নিব।

এসময় উপস্থিত ছিলেনÑ চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দের মধ্যে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মু. জিয়াউর রহমান, চাঁপাইনবাবগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য ডা. সামিল উদ্দিন আহমেদ শিমুল, সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য ফেরদৌসী ইসলাম জেসি, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আশরাফুল হক, শিবগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সৈয়দ নজরুল ইসলাম, শিবগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আতিকুল ইসলাম টুটুল খানসহ আরো অনেকে।

এছাড়া প্রতিনিধি দলকে স্বাগত জানাতে রাজশাহী থেকে এসেছিলেনÑ রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী কামাল ও সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার, রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সাবেক এমপি আব্দুল ওয়াদুদ দারা, আদিবা আনজুম মিতা এমপিসহ অন্যরা। ভারতীয় প্রতিনিধি দলে রয়েছেনÑ মঞ্জু পাল, তরুণ চক্রবর্তী, শুভ প্রসন্ন ভট্টাচার্য, সত্যম রায় চৌধুরী, মৌসুমী রায় চৌধুরী ও সাংকু বোসসহ অন্যরা।

জানা গেছে, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ, বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রীর ৫০ বছর পূর্তিতে রাজশাহী সিটি করপোরেশনের পৃষ্ঠপোষকতায় এবং ফ্রেন্ডস অব বাংলাদেশের উদ্যোগে বাংলাদেশ-ভারত সাংস্কৃতিক মিলনমেলা-২০২২ রাজশাহীতে আয়োজন করা হয়েছে।

গতকাল শুক্রবার থেকে আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি চার দিনব্যাপী এই সাংস্কৃতিক মিলনমেলা চলবে। এ উপলক্ষে রাজশাহী মহানগরকে বর্ণিল সাজে সাজানো হয়েছে।

চার দিনবাপী কর্মসূচির মধ্যে রয়েছেÑ ২৫ ফেব্রুয়ারি ভারতীয় অতিথিবৃন্দের আগমন, ২৬ ফেব্রুয়ারি সকাল সাড়ে ৯টায় সিঅ্যান্ডবি মোড়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরালে শ্রদ্ধা নিবেদন, সকাল ১০টায় জাতীয় চার নেতার অন্যতম শহীদ এএইচএম কামারুজ্জামানের সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন। আমন্ত্রিত অতিথিদের অংশগ্রহণে বেলা সাড়ে ১১টায় নগরভবন গ্রিন প্লাজায় নাগরিক সংবর্ধনা অনুষ্ঠান। বিকেল সাড়ে ৪টায় আলোচনা সভা, সন্ধ্যা ৭টায় রাজশাহী কলেজ মাঠে বাংলাদেশ ও ভারতের খ্যাতিমান শিল্পীবৃন্দের পরিবেশনায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। অনুষ্ঠানটি সকলের জন্য উন্মুক্ত থাকবে। ২৭ ফেব্রুয়ারি সকাল ৯টায় বরেন্দ্র রিসার্চ মিউজিয়াম ও পুঠিয়া রাজবাড়ী পরিদর্শন, সকাল ১০টায় নাটোর উত্তরা গণভবনে দিনব্যাপী অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ। সন্ধ্যা ৭টায় রাজশাহী কলেজ মাঠে জাতীয় ও স্থানীয় শিল্পীদের পরিবেশনায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। ২৮ ফেব্রুয়ারি সকালে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় পরিদর্শন, ১০টায় তাহেরপুরে দুর্গামন্দির পরিদর্শন, দুপুর ১টায় বাঘা শাহী মসজিদ ও দরগা পরিদর্শন, বিকেল ৪টায় রাজশাহীতে প্রত্যাবর্তন ও চা চক্রে অংশগ্রহণ।

২৫ থেকে ২৮ ফেব্রুয়ারি রাজশাহী চেম্বার অব কমার্স ইন্ডাস্ট্রিজের সহযোগিতায় রাজশাহী কলেজ মাঠে মেলার আয়োজন করা হয়েছে। চার দিনব্যাপী সাংস্কৃতিক মিলনমেলায় ভারতের পশ্চিমবঙ্গ, বিহার ও ত্রিপুরা রাজ্য সরকার, মন্ত্রী, রাজনৈতিক নেতা, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব, দেশের মন্ত্রী, সংসদ সদস্য, রাজনৈতিক-সামাজিক-সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব, সাংবাদিক, বুদ্ধিজীবী, সরকারি কর্মকর্তা ও বিভিন্ন স্তরের প্রতিনিধিরা অংশগ্রহণ করবেন।