রাজশাহীতে বঙ্গবন্ধু অনূর্ধ্ব-১৭ ফুটবল টুর্নামেন্ট : চ্যাম্পিয়ন চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা দল

251

রাজশাহীতে শেষ হলো অনূর্ধ্ব-১৭ বালক-বালিকাদের ফুটবলের জমজমাট আসর।  শুক্রবার বিকেলে ফাইনালের মধ্যদিয়ে শেষ হয় এই আসর।

যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় রাজশাহী বিভাগীয় প্রশাসন ও রাজশাহী জেলা ক্রীড়া অফিস এই টুর্নামেন্টের আয়োজন করে। এতে রাজশাহী বিভাগের ৮ জেলার ৮টি বালকদের এবং ৮টি বালিকাদের দল অংশগ্রহণ করে। এছাড়াও রাজশাহী মহানগরী থেকে একটি করে আরো দুটি দল অংশ নেয়।

খেলোয়াড় তৈরির লক্ষে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট বালক ও বঙ্গমাতা ফজিলাতুন নেসা মুজিব জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট (অনূর্ধ্ব-১৭) সিজন ২০২২-২৩ প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। টুর্নামেন্টে বালিকারা ভালো করতে না পারলেও রীতিমতো লড়াই করে নিজেদের ঘরে শিরোপা তুলে নেয় চাঁপাইনবাবগঞ্জের বালকরা। শুক্রবার বিকেলে রাজশাহী মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত টুর্নামেন্টের ফাইনালে পাবনা জেলা দলকে টাইব্রেকারে ৪-২ গোলে হারিয়ে প্রথমবারের মতো চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা দল। খেলায় সেরা গোলরক্ষকের পুরস্কারটিও পায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা দলের গোলরক্ষক গোবিন্দ সাহা।

খেলা শেষে অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার জিয়াউল হকের সভাপতিত্বে পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থেকে বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করেন রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন। বিশেষ অতিথি ছিলেনÑ রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার আবুল কালাম সিদ্দিক ও রাজশাহী জেলা প্রশাসক আব্দুল জলিল, স্থানীয় সরকার চাঁপাইনবাবগঞ্জের উপপরিচালক দেবেন্দ্র নাথ উরাঁওসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিরা।

এর আগে রাজশাহী জেলা দলকে ৩-০ গোলে এবং রাজশাহী মহানগর দলকে ৩-২ গোলে পরাজিত করে ফাইনাল খেলার সুযোগ করে নেয় চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা দল।

চলতি বছরের মে মাসে জেলা পর্যায়ের প্রতিযোগিতা শেষে সকল উপজেলা ও পৌরসভা দল হতে বাছাই করে গঠন করা হয় অনূর্ধ্ব-১৭ চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা ফুটবল দল।

জেলা ক্রীড়া অফিসার মো. জাহাঙ্গীর হোসেন বলেনÑ যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় মাঠপর্যায় থেকে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের মাধ্যমে খেলোয়াড় বাছাই করে জেলা ও বিভাগ এবং জাতীয় পর্যায় শেষে বিকেএসপির মাধ্যমে উন্নত প্রশিক্ষণ নিয়ে ব্রাজিল ও জার্মানিতে আরো উন্নত প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হবে।

জেলা ফুটবল দলের কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন মো. শামসুল আলম এবং তাকে সার্বিক সহযোগিতায় রয়েছেন মো. বিপ্লব হোসেন।