যে কোনো নাশকতা মোকাবিলায় আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনী প্রস্তুত : আনসার ডিজি

3

বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর মহাপরিচালক (ডিজি) মেজর জেনারেল একেএম আমিনুল হক বলেছেন, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আইনশৃঙ্খলা রক্ষা এবং ভোট কেন্দ্র ও ব্যালট বাক্সের নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণসহ নাশকতা মোকাবিলায় আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনী প্রস্তুত রয়েছে।
শনিবার আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর সদর দপ্তরে নিজ কার্যালয়ে গণমাধ্যমকে তিনি এ কথা জানান।
আমিনুল হক বলেন, নির্বাচন কমিশনের নির্দেশনা মোতাবেক ভোটদানে শৃঙ্খলা বজায় রাখতে সারাদেশে ১ হাজারটি সেকশনে বিভক্ত হয়ে গত ২৯ ডিসেম্বর থেকে আগামী ১০ জানুয়ারি পর্যন্ত ১৩ দিনের জন্য স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে ৫ লাখ ১৭ হাজার ১৪৩ জন সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে।
তিনি জানান, ইতোমধ্যে উপকূলের ১৩টি উপজেলা বাদে সকল উপজেলায় আনসার ব্যাটালিয়নের একটি করে স্ট্রাইকিং টিম নির্বাচনী পরিবেশ অবাধ, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ রাখতে সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং কর্মকর্তার পরিকল্পনা অনুযায়ী দায়িত্ব পালন করছে। এছাড়াও নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ২ হাজার ৮৫৫ জন কর্মকর্তা-কর্মচারী নিয়োজিত রয়েছেন।
মহাপরিচালক আমিনুল হক বলেন, নির্বাচনী কেন্দ্রের নিরাপত্তায় প্রতিটি কেন্দ্রে মোট ১২ জন করে আনসার ও ভিডিপি সদস্য সার্বক্ষণিক দায়িত্ব পালন করবেন। তাদের মধ্যে একজন প্লাটুন কমান্ডার (পিসি) ও একজন সহকারী প্লাটুন কমান্ডারের (এপিসি) নেতৃত্বে ৬ জন পুরুষ ও ৪ জন মহিলা ভিডিপি সদস্য নিয়োজিত থাকবেন। পিসি ও এপিসিগণ অস্ত্রসহ এবং ভিডিপি সদস্যগণ লাঠি হাতে ভোট কেন্দ্রের নিরাপত্তা ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় নিয়োজিত থাকবেন।
আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি ঘটলে তা দ্রুতসময়ে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করার জন্য নির্দেশ দেয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।