যুক্তরাষ্ট্রের সম্পদ বিক্রি করে দেওয়ার হুমকি সৌদি আরবের

124

01-Saudiযদি ৯/১১ টুইন টাওয়ার হামলার জন্য সৌদি আরবকে দোষী সাব্যস্ত করে যুক্তরাষ্ট্রে পার্লামেন্টে আইন পাশ হয়, তাহলে সৌদি সরকার যুক্তরাষ্ট্রের প্রায় ৭৫০ বিলিয়ন ডলার সমপরিমাণের সম্পত্তি বিক্রি করে দেবে। গত শনিবার নিউ ইয়র্ক টাইমস পত্রিকার এক প্রতিবেদনে সৌদি সরকারের এই হুমকির তথ্য প্রকাশিত হয়।
প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়, গত মাসে সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী আদেল আল জুবেইর ওয়াশিংটন সফরকালে সৌদি বাদশাহর বার্তা নিয়ে এসেছিলেন। আদেল মার্কিন পার্লামেন্ট সদস্যদের বলেছেন, মার্কিন আদালতের আদেশে সৌদি আরব দেউলিয়া হওয়ার আগেই দেশটির কর্তৃপক্ষ তাদের কাছে গচ্ছিত থাকা প্রায় ৭৫০ বিলিয়ন ডলার সমপরিমাণ মার্কিন সম্পত্তি বিক্রি করে দেবেন।
উল্লেখ্য, মার্কিন কংগ্রেসে সম্প্রতি একটি বিল উত্থাপন করা হয়েছে, যার মাধ্যমে ২০০১ সালের ১১ সেপ্টেম্বর যুক্তরাষ্ট্রের টুইন টাওয়ার হামলায় ক্ষতিগ্রস্তরা সরাসরি অভিযুক্ত রাষ্ট্রের কাছে ক্ষতিপূরণ চাইতে পারবে। মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিবিএস নিউজ জানিয়েছে, ৯/১১ হামলার তদন্ত কমিটির চেয়ারম্যান বব গ্রাহাম এই বিষয়টি নিয়ে সৌদি সরকারের সঙ্গে কথা বলার জন্য মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামাকে অনুরোধ করেছেন।
বব গ্রাহামের নেতৃত্বাধীন ওই তদন্ত কমিটির ২৮ পৃষ্ঠার প্রতিবেদনে বলা হয়, বিদেশি একাধিক সরকার ওই হামলার সঙ্গে যুক্ত। তবে ওই প্রতিবেদন জনসমক্ষে প্রকাশ করা হয়নি। সৌদি কর্মকর্তারা ২০০৩ সালে ওই প্রতিবেদন প্রকাশ করার জন্য মার্কিন কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ করেছিলেন। তবে বুশ প্রশাসন ওই অনুরোধ রাখেনি। একই পথে হেঁটেছেন ওবামাও।
মধ্যপ্রাচ্যে যুক্তরাষ্ট্রের দীর্ঘদিনের কৌশলগত মিত্র সৌদি সরকারকে ৯/১১ হামলায় জন্য আনুষ্ঠানিকভাবে কখনওই অভিযুক্ত করা হয়নি। তদন্ত কমিটির সেই ২৮ পৃষ্ঠার প্রতিবেদন অনুযায়ী ওই হামলায় অংশ নেওয়া সন্দেহভাজন ১৯ জনের মধ্যে ১৫ জনই সৌদি নাগরিক। ওই হামলার ২০ তম সদস্য সন্দেহভাজন জাকারিয়াস মৌসাওই হামলার দায় স্বীকার করে দাবি করেছেন, সৌদি রাজ পরিবারও আল-কায়েদার সমর্থক।
৯/১১ হামলায় ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের সদস্যরা সৌদি সরকারের বিরুদ্ধে ফেদারেল একটি মামলা দায়ের করেন। কিন্তু গত বছর এক রায়ে সৌদি রাজতন্ত্রকে সার্বভৌম দায়মুক্তি দেওয়া হয়।