যারা বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করেছে তাদের প্রতিনিধিত্ব করছে বিএনপি জামায়াত : এস এম কামাল

15

আওয়ামী লীগ সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম কামাল বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বপ্ন দেখেছিলেন মানুষের অন্ন, বস্ত্র, বাসস্থান, শিক্ষা ও চিকিৎসা নিশ্চিত করার। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাঁর সেই স্বপ্ন পুরণ করছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার লক্ষ্য হচ্ছে দেশের মানুষ যেন সুখে শান্তিতে থাকে, দুধে ভাতে থাকে, মানুষের যেন মাথা গোঁজার ঠাঁই থাকে। বঙ্গবন্ধু যাত্রা শুরু করেছিলেন ছিন্নমূল মানুষের বাসস্থান করে দিয়ে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সেই কাজটি করে যাচ্ছেন। দরিদ্র মানুষ যেন একখ- জমি পায়, মাথা গোঁজার ঠাঁই পায় সেই ব্যবস্থা হিসেবে তিনি আশ্রয়ন প্রকল্পের মাধ্যমে ৫২ টি উপজেলায় অসহায় দরিদ্র মানুষকে জমিসহ ঘর করে দিয়েছেন। যারা ঢাকায় এসি রুমে বসে শেখ হাসিনার সমালোচনা করেন তারা গ্রামে আসুন, দেখে যান গ্রামগুলো কীভাবে শহরে রুপান্তরিত হয়েছে। তারপর সমালোচনা করেন। আর যদি মিথ্যে সমালোচনা করেন তাহলে অসহায় মানুষের আর্তনাদ অঅপনাদেরকে ধ্বংস করে দিবে।’সোমবার (২৯ আগস্ট) সকালে চাঁপাইনবাবগঞ্জে আশ্রয়ন প্রকল্পের উপকারভোগীদের দেখার পর সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।
এস এম কামাল বলেন-জ্বালানী তেলসহ নিত্যপণ্যের ব্যাপারে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে, সারা বিশ্বে যে সংকট তৈরি হয়েছে তার প্রভাব বাংলাদেশেও পড়েছে। বিশ্বের অনেক দেশ হিমসিম খাচ্ছে। চাইনার সাংহাই শহরে ২৪ ঘণ্টা লোড শেডিং হচ্ছে, লনডোনের মতো জায়গায় একবেলা খাবার বন্ধ করে দিয়েছে।
তিনি বলেন-আন্তর্জাতিক বাজারে বৃদ্ধির কারণে দেশে জ্বালানী তেলের দাম বৃদ্ধি পেয়েছে এটা ঠিক। মানুষের কষ্ট হচ্ছে এটা জননেত্রেী শেখ হাসিনা স্বীকার করেছেন। তিনি বলেন-কিছু অসাধু ব্যবসায়ী সুযোগ নিচ্ছে। আপনারা জানেন, প্রায় এক কোটি মানুষকে টিসিবির পণ্য দেয়া হচ্ছে। ৫০ হাজার লোককে ১০ টাকা মূল্যে চাল দেয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে। তিনি বলেন-এই যে সাময়িক সংকট তা থাকবে না, শ্রেষ্ঠ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সংকট মোকাবেলা করবেন এবং জ্বালানী তেলসহ নিত্যপ্রয়োনীয় জিনিসের দাম কমবে, বিদ্যুতের যে লোড শেডিং সেটাও বন্ধ হবে।
আওয়ামী লীগ সাংগঠনিক সম্পাদক বলেন-মুক্তিযুদ্ধের শক্তির প্রতিনিধিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মুক্তিযুদ্ধের সকল পক্ষের মানুষ মনে করেন তাদের মুক্তির চেতনা শেখ হাসিনা। আর যারা বাংলাদেশকে মেনে নেয়নি, স্বাধীনতাকে মেনে নেয়নি যারা বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করেছে তাদের প্রতিনিধিত্ব করছে বিএনপি জামায়াত। কামাল বলেন-এরা কখন কি বলে তা আমাদের দেখার বিষয় নয়। আমাদের দেখার বিষয় হচ্ছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের সকল মানুষ বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়বে, অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়বে।
এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক এমপি আব্দুল ওদুদ, সহসভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা রুহুল আমিন, ডা.গোলাম রাব্বানী, যুগ্ম সম্পাদক ডা. সামিল উদ্দিন আহমেদ শিমুল এমপি, যুগ্ম সম্পাদক শরিফুল আলম, সংরক্ষিত আসনের এমপি ফেরদৌসী ইসলাম জেসি, পৌর মেয়র মোখলেসুর রহমান, চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মোখলেসুর রহমান, শিবগঞ্জ পৌর ময়র সৈয়দ মুনিরুল ইসলাম, রহনপুর পৌর মেয়র মতিউর রহমান খাঁন, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আজিজুর রহমান, জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ডা.সাইফ জামান আনন্দসহ দলীয় নেতৃবৃন্দ।
বিকেলে বঙ্গবন্ধুর ৪৭ তম শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে জেলা আওয়ামী লীগের শোক সভার আয়োজন করা হয়েছে।