মেট্রোরেলের কাজের অগ্রগতি ৮৬%

15

এগিয়ে চলছে মেট্রোরেলের কাজ। এরই মধ্যে আসতে শুরু করেছে মেট্রো ট্রেন। ২৪টি ট্রেন সেটের মধ্যে ১২টি ঢাকার উত্তরার ডিপোতে পৌঁছেছে। এখন আরো দুটি ট্রেন সেট ডিপোতে পৌঁছানোর অপেক্ষায় রয়েছে। এজন্য সম্ভাব্য তারিখ ধরা হয়েছে ২ জুন। সব মিলিয়ে মেট্রোরেলের কাজের অগ্রগতি হয়েছে ৮৬ শতাংশ। তবে উত্তরা থেকে আগারগাঁও অংশের অগ্রগতি ৯২ দশমিক ২ শতাংশ বলে জানায় ঢাকা ম্যাস ট্রানজিট কোম্পানি লিমিটেড (ডিএমটিসিএল)।
ডিএমটিসিএল জানায়, ২০২১ সালের ১১ মে বাংলাদেশে প্রথম বিদ্যুৎচালিত মেট্রো ট্রেন প্রদর্শন হয়। সেই সঙ্গে শুরু হয় ডিপোর ভেতরে ফাংশনাল কাজ। বর্তমানে ডিপোতে যেসব মেট্রো ট্রেন রয়েছে সেগুলোর পর্যায়ক্রমে ফাংশনাল চলছে।
গত বছরের (২০২১) ২৯ আগস্ট ভায়াডাক্টের ওপর মেইন লাইনে প্রথম মেট্রো ট্রেনের পারফরমেন্স টেস্টের সূচনা হয়। এরপর ১২ ডিসেম্বর থেকে আগারগাঁও মেট্রোরেল স্টেশন পর্যন্ত চলছে এই টেস্ট। পর্যায়ক্রমে ফাংশনাল, পারফরমেন্স, ইন্টিগ্রেটেড টেস্ট ও যাত্রীবিহীন ট্রায়াল রান শেষ হওয়ার পর আগামী ডিসেম্বরে প্রথম মেট্রো ট্রেন উত্তরা উত্তর থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত চালুর পরিকল্পনা নিয়েছে সরকার।
এর আগে রোলিং স্টক (রেল কোচ) ও ডিপো ইক্যুইপমেন্ট সংগ্রহের কাজ শুরু হয় ২০১৭ সালের ১৩ সেপ্টেম্বর।
ঢাকা ম্যাস র‌্যাপিড ট্রানজিট ডেভেলপমেন্ট প্রজেক্টের (লাইন-৬) প্রকল্প ব্যবস্থাপক (উপ-সচিব) এ.বি.এম. আরিফুর রহমান বলেন, এরই মধ্যে জাপান থেকে ১২টি ট্রেন ডিপো এলাকায় পৌঁছে গেছে। আশা করছি জুনের ২ তারিখ অর্থাৎ বৃহস্পতিবার আরো দুই সেট ট্রেন ডিপোতে পৌঁছাবে। এসব ট্রেনে নানা ধরনের পরীক্ষা-নিরীক্ষা হচ্ছে। সার্বিক কাজের অগ্রগতিও ভালো।
উত্তরা ডিপো : এই ডিপোতে একটি রিসিভিং সাব-স্টেশন, দুটি অক্সিলিয়ারি সাব-স্টেশন ও একটি ট্রাকশন সাব-স্টেশন স্থাপন করে চালু করা হয়েছে। ডিপো এলাকায় সম্পূর্ণ রেললাইন ১৯ কিলোমিটার শেষ হয়েছে। এর মধ্যে ১৬ কিলোমিটার ওয়ারিং শেষে চালু হয়েছে।
উত্তর থেকে আগারগাঁও : ভায়াডাক্টে উত্তর থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত সম্পূর্ণ অংশে রেললাইন (২৫ দশমিক ২৩ ট্র্যাক-কিলোমিটার) স্থাপন শেষ হয়েছে। ভায়াডাক্টের ওপর আগারগাঁও পর্যন্ত সম্পূর্ণ ওয়ারিং (৩১ দশমিক ১৩ কিলোমিটার) শেষ করে চালু করা হয়েছে। উত্তরা থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত সিগনালিং সিস্টেমের ইক্যুইপমেন্ট স্থাপন শেষ করে এখন পরীক্ষা চলছে। প্রতিটি স্টেশনে একটি করে মোট ৯টি অক্সিলিয়ারি সাব-স্টেশন এবং এই অংশে প্রয়োজনীয় চারটি ট্রাকশন সাব-স্টেশন স্থাপন করে চালু করা হয়েছে।
আগারগাঁও থেকে মতিঝিল : মতিঝিল রিসিভিং সাব-স্টেশনের ভবন নির্মাণ শেষে এখন বৈদ্যুতিক সরঞ্জামাদি স্থাপন করা হয়েছে। আগারগাঁও থেকে মতিঝিল পর্যন্ত ১৬ দশমিক ৩০ কিলোমিটার ট্রাক লাইনের মধ্যে ১২ দশমিক ৫৩০ কিলোমিটার স্থাপন করা হয়েছে।
কারওয়ান বাজার থেকে মতিঝিল : এই রুটে ৪ দশমিক ৯২২ কিলোমিটার ভায়াডাক্ট ও চারটি স্টেশনের (শাহবাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশ সচিবালয় ও মতিঝিল) নির্মাণ কাজ শুরু হয় ২০১৮ সালে। এরইমধ্যে এই অংশের পরিষেবা স্থানান্তর, চেকবোরিং, ট্রায়াল ট্রেঞ্চ, টেস্ট পাইল, স্থায়ী বোর্ড পাইল, পাইল ক্যাপ, পিয়ার কলাম, পিয়ার হেড, পোর্টাল বিম, স্টেশন কলাম, ভায়াডাক্টের জন্য প্রিকাস্ট সেগমেন্ট নির্মাণ, সব স্প্যান, স্পেশাল লং স্প্যান নির্মাণ, ভায়াডাক্ট ইরেকশন ও ভায়াডাক্টের ওপর প্যারাপেট ওয়াল স্থাপন শেষ হয়েছে।
শাহবাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও মতিঝিল স্টেশনে স্টিল রুফ স্ট্র্যাকচার স্থাপন এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় স্টেশনে রুফ সিট স্থাপন কাজ চলমান। এই প্যাকেজের আওতাধীন সব স্টেশনে মেকানিক্যাল, ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড প্লাম্বিং কাজ চলছে। শাহবাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও মতিঝিল স্টেশনের এন্ট্রি এক্সিট স্ট্র্যাকচারের নির্মাণ কাজ চলমান রয়েছে। খবর এফএনএস।