মুক্তিযুদ্ধের মূল্যবোধ ও গণতন্ত্র বিএনপির হাতে নিরাপদ নয় : কাদের

5

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপির গণবিরোধী চরিত্র ও নেতিবাচক রাজনীতি দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্বের জন্য অন্যতম হুমকি। মুক্তিযুদ্ধের মূল্যবোধ ও গণতন্ত্র তাদের হাতে নিরাপদ নয়।
মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের ভিত্তিহীন, রাজনৈতিকভাবে উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ও বিভ্রান্তিকর বক্তব্যের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, ‘বিএনপি মহাসচিব বলেছেন- দেশের সবাই নাকি এখন বিপদে আছে, ভয়ঙ্কর সংকটে দেশ। ফখরুল ইসলাম আলমগীর সাহেবকে বলতে চাই, দেশের মানুষ আসলে বিপদে আছে বিএনপিকে নিয়ে। নিজেদের রাজনৈতিক দেউলিয়াত্ব ঘোচানোর জন্য বিএনপি কখন কী দুর্ঘটনা ঘটিয়ে বসে? এই দুশ্চিন্তায় দেশের জনগণ। জনগণ মনে করে দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্বের জন্য অন্যতম হুমকি হচ্ছে বিএনপির গণবিরোধী চরিত্র ও নেতিবাচক রাজনীতি। মুক্তিযুদ্ধের মূল্যবোধ ও গণতন্ত্র তাদের হাতে নিরাপদ নয়।’
আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, দেশ নয়, গভীর সংকটে রয়েছে বিএনপি। সংকটে তাদের পরাশ্রয়ী রাজনীতি। তারা প্রতিদিন আন্দোলনের হুমকি দেয়, কিন্তু এখনো তাদের আন্দোলনের নেতা কে সেটাই তারা জানে না। তিনি বলেন, বিএনপির চেয়ারপারসন এবং ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান দুজনেই দণ্ডপ্রাপ্ত। একজন এতিমের টাকা আত্মসাৎ করায় দণ্ডপ্রাপ্ত হয়েও প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুকন্যা দেশরত্ন শেখ হাসিনার মহানুভবতায় ঘরে বসে চিকিৎসা গ্রহণের সুযোগ পেয়েছেন। অন্যজন রাজনীতি করবে না বলে মুচলেকা দিয়ে কাপুরুষের মতো বিদেশে পালিয়েছে এবং অর্থপাচার ও দুর্নীতিসহ ২১ আগস্ট নারকীয় গ্রেনেড হামলার মামলায় দণ্ডপ্রাপ্ত পলাতক আসামি। নিরাপদ দূরত্বে থেকে নিজে বিলাসী জীবনযাপন করছে আর নেতাকর্মীদের চাঙ্গা করতে দূর থেকে শব্দ বোমা ছুঁড়ছে। স্বপ্ন দেখছে ক্ষমতার ময়ূর সিংহাসনের। সে আশায় গুঁড়েবালি।
ওবায়দুল কাদের আরো বলেন, দেশের জনগণ আর পেছনে ফিরে যেতে চায় না। তারা দুর্নীতির বরপুত্র, হাওয়া ভবনের ¯্রষ্টা ও দণ্ডপ্রাপ্ত পলাতক আসামি তারেক রহমানকে ক্ষমতায় দেখতে চায় না।
বিবৃতিতে তিনি বলেন, বর্তমানে দেশে গণতন্ত্রেরও কোনো সংকট নেই। সংকট বিএনপির মনস্তত্ত্বে। বিএনপি নেতৃবৃন্দ সর্বদা কৃত্রিম সংকটের দুর্গন্ধ ছড়িয়ে বিভ্রান্তিকর বক্তব্য-বিবৃতি প্রদান করে। স্বাধীনতা গেল বলে হা-হুতাশের রাজনীতি করে। বিএনপিকে এই সংকট থেকে উত্তরণে অপরাজনীতির কৌশল পরিহার করতে হবে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও গণতান্ত্রিক মূল্যবোধকে ধারণ করে তারা সঠিক পথে ফিরে আসলেই তা দেশের রাজনীতির জন্য সহায়ক হবে বলে আশা রাখি।