মায়ের বুকে চিরনিদ্রায় শায়িত খোকা

9

মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে রাষ্ট্রীয় মর্যাদা, দলের নেতাকর্মী, বিভিন্ন দলের রাজনীতিবিদ ও সাধারণ মানুষের ভালোবাসায় সিক্ত হয়ে চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন অবিভক্ত ঢাকা সিটি করপোরেশনের শেষ সাবেক মেয়র ও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান সাদেক হোসেন খোকা। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে জুরাইনে মায়ের কবরেই দাফন করা হয় সাদেক হোসেন খোকাকে।
২০০২ থেকে ২০১১ সাল পর্যন্ত ঢাকা সিটি করপোরেশন অবিভক্ত থাকাকালে মেয়রের দায়িত্ব পালন করেছেন, সেখানেই শেষবারের মতো বিকেল পৌনে ৩টায় নেয়া হয় সাদেক হোসেন খোকার মরদেহ। প্রিয় মানুষের মরদেহ আনার পর (বর্তমান) ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের অনেক কর্মকর্তা কর্মচারী কান্নায় ভেঙে পড়েন। ইট, কাঠ, কংক্রিটের নগর ভবনও যেন তখন শোকে পাথর।
সাদেক হোসেন খোকার প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে দক্ষিণের মেয়র সাইদ খোকন বলেন, ‘দল মত নির্বিশেষে তিনি সকলের জন্য কাজ করে গেছেন। তার আদর্শ ধারণ করে সকলকে কাজ করার আহ্বান জানান তিনি।
এর আগে রাজধানীর নয়াপল্টনে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে জানাজা অনুষ্ঠানে সাদেক হোসেন খোকার প্রসঙ্গে কথা বলতে গিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। কাঁদতে কাঁদতে তিনি বলেন, ‘খোকা ভাই আর আমাদের মাঝে নেই। তার মৃত্যুতে বিএনপিতে যে শূন্যতা তৈরি হলো, সে শূন্যতা সহজে পূরণ হবার নয়।’
বিকেল পৌনে ৪টায় গোপীবাগের ধুপখোলা মাঠে নিয়ে যাওয়া হয় খোকার মরদেহ। সেখানে শেষ নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। তারপর দাফন করা হয়।