মালদার মহানন্দা হয়ে কুমির এখন পুনর্ভবা নদীতে, দুই দিন থেকে দেখা যাচ্ছে রহনপুরে

91

চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুরের রহনপুরে গত দুই দিন থেকে পুনর্ভবা নদীতে ভাসছে কুমির। কুমিরের ভয়ে আতঙ্ক রয়েছে নদী-তীরবর্তী লোকজন ও জেলেদের মধ্যে। খবর পেয়ে স্থানীয় ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে এসে কুমিরের অবস্থান পর্যবেক্ষণ করেন। পরে বিষয়টি রাজশাহী বিভাগীয় বন অধিদপ্তরের কর্মকর্তাদের জানান। এদিকে বনবিভাগের কর্মকর্তারা গত দুই দিন থেকে কুমির ধরার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।
স্থানীয়রা জানান, গত মঙ্গলবার দুপুর থেকে মকরমপুর ঘাট এলাকায় কুমিরটি দেখতে পাওয়া যায়। এ খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে উৎসুক জনতা কুমিরটিকে দেখতে নদীর তীরে ছুটে যান। তারা মাঝে মধ্যে ভাসমান অবস্থায় কুমিরটিকে দেখতে পান।
এরপর বুধবার সকাল থেকে কুমিরটিকে রহনপুর পৌরসভার রেলসেতু, বুড়িতলা ঘাট, বেইলি ব্রিজ, গুজরা ঘাট ও বাবুরঘোন এলাকায় দেখা যায়।
এদিকে কুমির দেখা যাওয়ায় আতঙ্কে পুনর্ভবা নদীতে গোসলে নামতে ভয় পাচ্ছেন এলাকার মানুষ। জেলেরাও মাছ ধরতে নামছেন না। স্থানীয়দের ধারণা কুমিরটি ভারতের মালদা হয়ে এসেছে।
গোমস্তাপুর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশনের কর্মকতা রেজাউল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে তারা নদীতে ছুটে যান। কুমিরের অবস্থান দেখে রাজশাহী বন বিভাগকে জানিয়ে দেওয়া হয়। তারা এসে কুমিরটি উদ্ধারের চেষ্টা করছেন। তাদের প্রয়োজন হলে আমরা সহযোগিতা করব।
রাজশাহী বন বিভাগের কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর কবীর বলেন, কুমিরটি নদীতে অবস্থান পরিবর্তন করছে। গত দুই দিন থেকে চেষ্টা করা হচ্ছে কুমিরটি উদ্ধারে। স্থানীয় লোকজন ও জেলেদের সঙ্গে নিয়ে নেট জাল দিয়ে তারা কুমিরটি ধরার চেষ্টা করছেন। তবে বুধবার সন্ধ্যা পর্যন্ত কুমিরটি ধরতে পারেননি তারা।
এদিকে নদীর ধারে না যেতে প্রশাসনের তরফ থেকে সবাইকে সতর্ক করা হচ্ছে।