মার্চে বাংলাদেশ-ভারত বাণিজ্য সচিব পর্যায়ের বৈঠকের সম্ভাবনা

5

বাণিজ্যিক প্রতিবন্ধকতা দূর এবং দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য বৃদ্ধির লক্ষে অবকাঠামোগত উন্নয়নসহ বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে আলোচনার জন্য আগামী মার্চ মাসের প্রথম সপ্তাহে বাংলাদেশ ও ভারতের বাণিজ্য সচিব পর্যায়ের বৈঠক অনুষ্ঠিত হতে পারে।
সোমবার সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, নয়াদিল্লিতে অনুষ্ঠেয় এই বৈঠকে বাংলাদেশী পাটজাত দ্রব্য খালাস শুল্ক তুলে নেয়া, অধিকতর বাংলাদেশী পণ্য রপ্তানির লক্ষে ভারতের বিএসটিআই সনদের স্বীকৃতি ও বাণিজ্য বাধা দূরীকরণের মতো বিষয়গুলোতে আলোকপাত করা হবে।
২০১৭ সাল থেকে পাঁচ বছর বাংলাদেশী পাটজাত দ্রব্যের ওপর নয়াদিল্লি পণ্য খালাস শুল্ক আরোপ করেছে। ঢাকা দীর্ঘদিন ধরেই এই শুল্ক তুলে নেয়ার দাবি জানিয়ে আসছে।
এই বিষয়টি নিয়ে গত বছরের মার্চ মাসে ঢাকায় আয়োজিত বাণিজ্য সচিব পর্যায়ের বৈঠকে আলোচনা হলেও এ ব্যাপারে কোনো উল্লেখযোগ্য সমাধান আসেনি।
সূত্র আরো জানায়, বাংলাদেশ এই শুল্ক তুলে নিতে ভারতকে আনুষ্ঠানিকভাবে চিঠি দিয়েছে। তারা বলেছে, সমন্বিত অর্থনৈতিক অংশীদারিত্ব চুক্তি (সিইপিএ) এবং দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্যের বিস্তার আসন্ন বৈঠকের এজেন্ডায় প্রাধান্য পাবে।
বাংলাদেশের বাণিজ্যমন্ত্রী ও ভারতীয় বাণিজ্যমন্ত্রী নিজ নিজ প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দিবেন। উভয় দেশের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় দপ্তরের প্রতিনিধিরাও বৈঠকে যোগ দিবেন।
গত বছরের মার্চ মাসে ঢাকায় উভয় দেশের সর্বশেষ বাণিজ্য সচিব পর্যায়ের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এতে বাংলাদেশের বাণিজ্য সচিব ড. মো. জাফর উদ্দিন ও ভারতের বাণিজ্য ও শিল্প সচিব অনুপ ওয়াধাবান নিজ নিজ প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেন।