মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদে হংকং ‘ডেমোক্রেসি অ্যাক্ট’ পাস

6

মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদ হংকংয়ের গণতন্ত্রপন্থী বিক্ষোভকারীদের চাওয়া একটি আইন গত মঙ্গলবার পাস করেছে। এ আইনের লক্ষ্য হচ্ছে আধা-স্বায়ত্তশাসিত ওই ভূ-খণ্ডের বেসামরিক নাগরিকদের অধিকার রক্ষা করা। খবর এএফপির।
হংকং হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড ডেমোক্রেসি অ্যাক্ট সমবর্তিত কংগ্রেসে উভয় পক্ষের সমর্থনে পাস হয়। কংগ্রেসে সাধারণত এমনটা ঘটে না। এ ধরনের আইন পাসে চীন ফের ক্ষুব্ধ হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। আন্তর্জাতিক এ বাণিজ্যিক কেন্দ্রে কয়েক সপ্তাহ ধরে অস্থিরতা চলায় ‘বিদেশী শক্তিকে’ দায়ী করা হয়।
এ আইনের প্রধান উদ্যোক্তা রিপাবলিকান প্রতিনিধি ক্রিস স্মিথ পরিষদে বলেন, ‘হংকংয়ের অধিকার এবং স্বায়ত্তশাসন রক্ষা করা হবে সরকারের এমন প্রতিশ্রুতির প্রতি আস্থাসহকারে সম্মান জানাতে আজ আমরা চীনের প্রেসিডেন্ট এবং হংকংয়ের প্রধান নির্বাহী ক্যারি ল্যামের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।’
হংকংয়ের গণতন্ত্রপন্থী নেতাদের চীনের মূল ভূখ-ের কর্তৃপক্ষের হাতে তুলে দেয়ার আইনের বিরুদ্ধে হংকংয়ের রাজপথে লাখ লাখ মানুষ নেমে আসে। বর্তমানে আইনটি প্রত্যাহার করে নেয়া হয়েছে। গণতন্ত্রপন্থীদের মাসব্যাপী এ আন্দোলন সারা হংকংয়ে ছড়িয়ে পড়েছে। এ ভূখ-ের সক্রিয় কর্মীরা বলছেন, ব্রিটিশ ঔপনিবেশিক শাসন থেকে চীনে ফিরে যাওয়ার ব্যাপারে হংকংয়ের ১৯৯৭ সালের দিকনির্দেশনা সম্বলিত একটি চুক্তি থাকা সত্ত্বেও বেইজিং ভূখ-টির স্বাধীনতা হরণ করছে।
নগরী কর্তৃপক্ষ মানবাধিকার ও আইনের শাসন মেনে চলছেন মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তর বার্ষিক এমন সনদ না দিলে যুক্তরাষ্ট্রের সাথে হংকংয়ের বিশেষ বাণিজ্যিক মর্যদার অবসান ঘটাবে হংকং রাইটস অ্যান্ড ডেমোক্রেসি অ্যাক্ট।
প্রতিনিধি পরিষদের ডেমোক্রেট সদস্য বিন রয় লুজান বলেন, পরিষদ এ আইন পাসের মধ্যদিয়ে হংকংয়ের জনগণের প্রতি এমন বার্তা পাঠাল যে তারা গণতন্ত্র ও ন্যায়বিচারের লড়াইয়ে এ ভূখ-ের জনগণের পাশে রয়েছে।