মার্কিন ডলারের বিপরীতে চীনা মুদ্রার রেকর্ড পতন

7

মার্কিন ডলারের বিপরীতে বিশ্বের অন্যান্য প্রধান মুদ্রার পতন অব্যাহত রয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় এবার চীনের মুদ্রা ইউয়ানের রেকর্ড পতন হয়েছে। বুধবার ব্লুমবার্গের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।জানা গেছে, গতকাল বুধবার চীনের বাইরে প্রতি মার্কিন ডলারের বিপরীতে অফশোর ইউয়ানের মান কমে সাত দশমিক ২৩৮৬ হয়েছে, যা ২০১০ সালের পর সর্বনিম্ন। অন্যদিকে অনশোর বা অভ্যন্তরীণ ক্ষেত্রে প্রতি মার্কিন ডলারের বিপরীতে ইউয়ানের মান কমে সাত দশমিক ২৩০২ হয়েছে, যা ২০০৮ সালের বৈশ্বিক অর্থনৈতিক সংকটের পর সর্বনিম্ন।মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণে যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক সুদের হার বাড়িয়েছে। এরপর বিনিয়োগকারীদের কাছে চাহিদা বেড়েছে ডলারের। তাই বিশ্বের অন্যান্য মুদ্রাগুলোর পতন ঠেকানো যাচ্ছে না। গত সোমবার ব্রিটিশ পাউন্ডের মূল্য কমে ৪০ বছরের মধ্যে সর্বনিম্ন হয়। দেশটির নতুন সরকারের বাজেট পরিকল্পনা ও শুল্ক কমানোর ঘোষণায় এমন পরিস্থিতি তৈরি হয়।

এদিকে মার্কিন ডলারের বিপরীতে ভারতীয় রুপির দরপতনও যেন থামছে না। গতকাল বুধবার নতুন করে ইতিহাসের সর্বনিম্ন পর্যায়ে নেমেছে ভারতীয় মুদ্রার মান। ডলারের মূল্যমান কমাতে একটি চুক্তির সম্ভাবনা হোয়াইট হাউজ বাতিল করে দেওয়া ও ফেডারেল নীতিনির্ধারকদের কঠোর অবস্থানে মার্কিন মুদ্রার মান বেড়েছে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকেরা।বার্তা সংস্থা পিটিআই’র বরাতে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি জানিয়েছে, গতকাল বুধবার লেনদেনের একপর্যায়ে মার্কিন ডলারের বিপরীতে ভারতীয় মুদ্রার মান আরও ৪০ পয়সা কমে ৮১ দশমিক ৯৩ রুপি স্পর্শ করে, যা সর্বকালের সর্বনিম্ন।