মানুষের স্বার্থে নৌকার পক্ষে রায় দেওয়া উচিত : চাঁপাইনবাবগঞ্জে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে এসএম কামাল

26

আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও রাজশাহী বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা এসএম কামাল হোসেন বলেছেন, আগামী নির্বাচনে দেশের উন্ননের স্বার্থে, দেশের মানুষের স্বার্থে নৌকার পক্ষে ভোটারদের রায় দেয়া উচিত।
আগামী ২৯ জানুয়ারি রাজশাহীতে আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সফরকে সফল করে তোলা এবং আগামী ১ ফেব্রুয়ারি জাতীয় সংসদের চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ (সদর) ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ আসনে উপনির্বাচনকে সামনে রেখে চাঁপাইনবাবগঞ্জের সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি এ কথা বলেন। বৃহস্পতিবার দুপুরে জেলাশহরের শহীদ মনিমুল হক সড়কে দলীয় কার্যালয়ে এ মতবিনিময় অনুষ্ঠিত হয়।
নিত্যপণ্যের মূল্যবৃদ্ধি প্রসঙ্গে এসএম কামাল হোসেন বলেন- ২০০১ থেকে ২০০৫ সাল পর্যন্ত বিএনপির আমলে ৮ বার গ্যাসের দাম বৃদ্ধি করা হয়েছে, এক মেগাওয়াট বিদ্যুতও উৎপাদন করতে পারেনি। বরং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার রেখে যাওয়া বিদ্যুৎ কমিয়ে দিয়েছিল। তারা স্বাধীনতাকে বিশ্বাস করে না, তারা ৭২ এর সংবিধান পরিবর্তন করে ফেলতে চায়, তারা রাষ্ট্র মেরামত করতে চায়। বিএনপির প্রতি প্রশ্ন ছুড়ে দিয়ে কামাল বলেন, তাহলে ২৮ বছর ক্ষমতায় থেকে বিএনপি দেশের জন্য কি করেছে? কিছুই করেনি। লুটপাট করেছে। অপর দিকে শেখ হাসিনার আমলে দেশের উন্নয়ন হয়েছে। স্বাধীনতার পর মাত্র সাড়ে ৩ বছরের মাথায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যার পর বিএনপির পক্ষ থেকে আওয়ামী লীগ সম্পর্কে দেশের সাধারণ মানুষকে ভুল বুঝানো হয়েছে। তারা মানুষকে বুঝিয়েছে নৌকায় ভোট দিলে দেশ ভারত হয়ে যাবে, মসজিদে আজান হবে না, মাদ্রাসা শিক্ষা বন্ধ হয়ে যাবে। অথচ দেখুন, বঙ্গবন্ধু ইসলামিক ফাউন্ডেশন করেছেন, কাকরাইল মসজিদ করেছেন, বায়তুল মসজিদের সংস্কার করেছেন। বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা সারা দেশে ৬৪ জেলায়, উপজেলায় মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র নির্মাণ করছেন; যার বেশ কিছু ইতোমধ্যেই তিনি উদ্বোধন করেন। কারণ, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ইসলামের সঠিক চর্চার জন্য এই কাজটি করেছেন, কওমি মাদ্রাসার অনুমোদন দিয়েছেন। করোনায় ইমাম সাহেবদের সহায়তা দিয়েছেন। এসব কথাগুলো গণমাধ্যমে প্রচার এবং আসন্ন নির্বাচনে সত্যটা তুলে ধরার আহ্বান জানান তিনি।
সাংবাদিকদের প্রতি এসএম কামাল বলেন- আমি আসলে আপনাদের সঙ্গে পরিচিত হতে এসেছি। আমি অনেকদিন থেকে রাজশাহী অঞ্চলের সাংগঠনিক দায়িত্ব পালন করছি কিন্তু আপনাদের সঙ্গে বসা হয়নি। তাই এই আয়োজন। তিনি বলেন, আমাদের চলার পথে ভুল থাকতে পারে, আপনারা ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন এবং বিএনপির থেকে আওয়ামী লীগের পার্থক্যটা তুলে ধরবেন। সরকারের উন্নয়নগুলো আপনাদের লেখনির মাধ্যমে সাধারণ মানুষকে জানাবেন।
উল্লেখ্য, এই উপনির্বাচনে দলীয় প্রার্থী হিসেবে চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসনে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক এমপি আব্দুল ওদুদ ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ আসনে সাবেক এমপি ও জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মু. জিয়াউর রহমান প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।
মতবিনিময়ে দলীয় নেতৃবৃন্দের মধ্য উপস্থিত ছিলেন- নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা রুহুল আমিন, সাধারণ সম্পাদক ও উপনির্বাচনে সংসদ সদস্য পদপ্রার্থী মো. আব্দুল ওদুদ, সহসভাপতি সৈয়দ নজরুল ইসলাম ও ডা. গোলাম রাব্বানী, যুগ্ম সম্পাদক ডা. সামিল উদ্দিন আহমেদ শিমুল এমপি ও শরিফুল আলম, সদস্য পৌর মেয়র মোখলেসুর রহমানসহ অন্যরা।