মাধ্যমিকের স্কুল বন্ধই থাকছে আফগানিস্তানে

5

মাধ্যমিকের স্কুলে মেয়েদের যাওয়ার অনুমতি দিয়ে ঘোষণা দেওয়ার পরও পিছু হটলো আফগানিস্তানের তালেবান সরকার। বুধবার তালেবান সরকারের তরফে জানানো হয়েছে, তাদের জন্য ইসলামি আইন অনুসারে একটি পরিকল্পনা তৈরি না হওয়া পর্যন্ত স্কুল বন্ধ থাকবে। রাজধানী কাবুলের আশপাশের তিনটি স্কুলের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা জানান, মেয়েরা স্কুল খোলার আনন্দে মেতেছিল বুধবার সকালে। কিন্তু পরে তাদের বাড়ি ফেরার নির্দেশনা আসে। অনেক শিক্ষার্থীই অশ্রুভেজা চোখে স্কুল ছেড়ে বাড়ি যান।নিরাপত্তার স্বার্থে নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক শিক্ষার্থী কাঁদতে কাঁদতে বলেন, আমরা হতাশ হয়েছি এ খবর শুনে, যখন প্রিন্সিপ্যাল আমাদের বলছিলেন। আফগানিস্তানে আগামী সপ্তাহ থেকে মেয়ে শিক্ষার্থীদের জন্য খুলে দেওয়া হচ্ছে মাধ্যমিকের স্কুল বলে ঘোষণা দেওয়া হয়। স্থানীয় সময় গত বৃহস্পতিবার শিক্ষার্থীদের স্কুলে যাওয়ার অনুমতি দেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন দেশটির এক শিক্ষা কর্মকর্তা। এই কর্মকর্তা আরও বলেন, চলতি বছর থেকে আর কোনো স্কুল বন্ধ থাকবে না। এখন সেই ঘোষণা থেকে সরে এলো তালেবান সরকার।

ফলে আবারও আশাভঙ্গ হলো আফগান মেয়ে শিক্ষার্থীদের। ২০২১ সালের ১৫ আগস্ট আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুল দখলে নেয় তালেবান। এরপর ৩১ আগস্ট টানা ২০ বছরের যুদ্ধের অবসান ঘটিয়ে শেষ পর্যন্ত দেশটি থেকে সব সেনা প্রত্যাহার করে নেয় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও তাদের মিত্ররা। এরপর দেশের শাসনভার তুলে নেয় তালেবান। তালেবান ক্ষমতা নেওয়ার পর দেশটিতে নারীদের আবারও কাজ থেকে বিরত রাখা হয়। তালেবান নারীবিষয়ক মন্ত্রণালয়ও বন্ধ করে দেয়। এতে তীব্র সমালোচনা শুরু হয় বিশ্বজুড়ে।