মনাকষায় ককটেল বিস্ফোরণ

29

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার মনাকষা এলাকায় এক স্কুলছাত্রীকে উত্ত্যক্তের জেরে ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় শিবগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৪ জন চিকিৎসা নিয়েছেন। তবে স্কুলছাত্রীর পরিবারের দাবি, তাদের ১০ জন আত্মীয়স্বজন আহত হয়েছেন।
গত শুক্রবার রাতে উপজেলার মনাকষা বাজার সাফিনা মার্কেটের সামনে এ ঘটনা ঘটে। এদিকে পুলিশের দাবি, এলাকায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ককটেল বিস্ফোরণ ঘটানো হয়েছে।
স্থানীয়রা জানান, শিবগঞ্জ উপজেলার একটি উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রীকে দীর্ঘদিন ধরে উত্ত্যক্ত করে আসছিল পাশর্^বর্তী হাউসনগর গ্রামের সফিকুল ইসলামের ছেলে জুয়েল (২৫)। এ নিয়ে স্থানীয়ভাবে কয়েকবার সালিশ-মীমাংসাও হয়। এরপরও গত বৃহস্পতিবার আবারো ওই স্কুলছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করে জুয়েল। পরে স্কুলছাত্রী বাড়ি গিয়ে তার নানীকে বিষয়টি অবহিত করে। এরই জেরে ক্ষিপ্ত হয়ে শুক্রবার রাতে সাফিনা মার্কেট সংলগ্ন স্কুলছাত্রীর মামার দোকানের সামনে ও বাজারে ১০-১২টি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে ত্রাস সৃষ্টি করে জুয়েলসহ তার লোকজন। এতে প্রায় ১০ জন আহত হন। স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এর মধ্যে আরিকুলকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করেন কর্তব্যরত চিকিৎসক।
এ বিষয়ে স্কুলছাত্রীর পিতা জানান, স্কুলে যাওয়া আসার পথে দীর্ঘদিন ধরে মেয়েকে উত্ত্যক্ত করে আসছে জুয়েল। এ নিয়ে ছেলের পিতাকে বেশ কয়েকবার অবহিত করার পর স্থানীয় ইউপি সদস্যের মাধ্যমে মীমাংসা হয়। তারপরও মাঝে মাঝে মেয়েকে রাস্তায় উত্ত্যক্ত করে সে। আর এর প্রতিবাদ করায় ভীতি ছড়াতে ককটেল বিস্ফোরণ ঘটায় ছেলেটির সমর্থকরা।
তবে এ ঘটনায় জুয়েলের কোনো মন্তব্য না পাওয়া গেলেও তার মামা মেসবাহুল বিষয়টি অস্বীকার করে জানান, ঘটনার সময় তিনি সাহাপাড়ায় ছিলেন।
এ ব্যাপারে মনাকষা ইউপি চেয়ারম্যান মির্জা শাহাদাৎ হোসেন খুররম জানান, বর্তমানে তিনি ঢাকায় রয়েছেন। তবে শুনেছেন এক স্কুলছাত্রীকে উত্ত্যক্তের জেরে মনাকষা বাজারে ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে ত্রাস করেছে ছেলে পক্ষ।
এ বিষয়ে শিবগঞ্জ থানার ওসি চৌধুরী জোবায়ের আহম্মেদ জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। তবে তিনি মেয়েকে উত্ত্যক্ত করার ঘটনায় নয়, এলাকায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দুই গ্রুপে সংঘর্ষ-ককটেল বিস্ফোরণে কয়েকজন আহত হয়েছে। তিনি আরো জানান, ৬টি ককটেল বিস্ফোরিত হয়েছে এবং এ ঘটনায় অভিযোগ পেলে তদন্ত করে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।