ভৌতিক সত্য ঘটনা অবলম্বনে নির্মিত ‘কফিন’

27

মোশাররফ করিম একজন ভার্সেটাইল অভিনেতা। সেটার পরিচয় তিনি বরাবরই দিয়েছেন তার অভিনয় আর কাজ দিয়ে। বাংলাদেশের গ-ি পেরিয়ে নিজের অভিনয়ের ছাপ ফেলেছেন কলকাতায়ও। কলকাতার বেশ কিছু সিনেমায় গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন মোশাররফ করিম। এর আগে ব্রাত্য বসু পরিচালিত কলকাতার ‘ডিকশনারি’ ছবিতে একজন ধনাঢ্য ব্যবসায়ীর ভূমিকায় প্রথম অভিনয় করেন। মোশাররফ করিমের অভিনয় ব্যাপক প্রশংসিত হয়। পরবর্তীতে মণীশ বসুর পরিচালনায় ‘গু কাকু: দ্য পটি আঙ্কল’-এ অভিনয় করলেন।

এবং সবশেষ ব্রাত্য বসুর নতুন পলিটিক্যাল থ্রিলার ‘হুব্বা’র শুটিং শেষ করেছেন। এ ছাড়া ওটিটি প্ল্যাটফর্মে তার আরও একটি কাজ ‘কফিন’ মুক্তির অপেক্ষায়। গত বৃহস্পতিবার মুক্তি পায় কফিনের ট্রেলার। ট্রেলার ঘিরেই ব্যাপক উত্তেজনা দর্শকদের মধ্যে। ভূত অথবা মানুষের আত্মাকে ভয় পাওয়া। ভূত বলতে কি আদৌ কিছু আছে নাকি সবটাই কুসংস্কার। সত্য ঘটনা অবলম্বনে এই ভৌতিক গল্প নিয়ে নির্মিত ওয়েব ফিল্ম ‘কফিন’। যার পরিচালনায় থাকছেন রনি ভৌমিক। ভৌতিক থ্রিলারটির গল্প এগোয় একটি মরদেহকে কেন্দ্র করে। মোশাররফ এতে অ্যাম্বুলেন্সের ড্রাইভার চরিত্রে অভিনয় করেছেন। অ্যাম্বুলেন্সে করে মরদেহ নিয়ে যাওয়ার সময় ঘটে নানা ভৌতিক ঘটনা। এতে আরও অভিনয় করেছেন অশোক বেপারি, শুভ প্রমুখ।

ওটিটি প্ল্যাটফর্ম বিঞ্জে মুক্তি পাবে ফিল্মটি। এদিকে সামনের বছর মুক্তি পাবে মোশাররফ করিম অভিনীত কলকাতার সিনেমা ‘হুব্বা’। ‘হুব্বা’তে কুখ্যাত ডন হয়ে আসছেন মোশাররফ করিম। গল্পের প্রেক্ষাপট হচ্ছে নব্বইয়ের হুগলি জেলার অন্ধকার জগৎ। যেখানকার গ্যাংস্টার হুব্বা। খুন থেকে শুরু করে সব অপকর্মের মূল হোতা এই গ্যাংস্টার হুব্বা। পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হওয়ার পর জামিনে ছাড়া পায়। পরবর্তী সময়ে বহুদিন নিখোঁজ থাকার পর ২০১২ সালে বৈদ্যবাটির খালে মরদেহ পাওয়া যায় হুব্বার। এই ডনের জীবন ঘিরে নির্মিত সিনেমা ‘হুব্বা’। এতে পুলিশের চরিত্রে অভিনয় করেছেন ইন্দ্রনীল সেনগুপ্ত। আর তার স্ত্রীর ভূমিকায় অভিনয় করেছেন পৌলোমী বসু। এর পরিচালক হচ্ছেন ব্রাত্য বসু। যিনি সিনেমাটির চিত্রনাট্য করেছেন সুপ্রতিম সরকারের ‘আবার গোয়েন্দাপীঠ’ অবলম্বনে।