দৈনিক গৌড় বাংলা

মঙ্গলবার, ২৫শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১১ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৯শে জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি

ভারতে তাপপ্রবাহে ৮ জনের মৃত্যু

ভারতের পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য ওড়িশায় তীব্র তাপপ্রবাহে আটজনের মৃত্যু হয়েছে। ৭২ ঘণ্টায় তাদের মৃত্যু হয়েছে বলে মঙ্গলবার জানিয়েছেন দেশটির কর্মকর্তারা। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি এ খবর জানিয়েছে। মে মাসে প্রকাশিত সরকারি পরিসংখ্যান অনুসারে, তাপজনিত অসুস্থতার কারণে ভারতজুড়ে মার্চ থেকে মে মাসের মধ্যে ৬০ জন মারা গেছে। কর্মকর্তারা বলছেন, ভারত এখন পর্যন্ত দীর্ঘতম তাপপ্রবাহের মাঝখানে রয়েছে। কারণ সম্প্রতি কিছু এলাকায় তাপমাত্রা ৫০ ডিগ্রি সেলসিয়াস অতিক্রম করেছে। ইন্ডিয়ান মেটিওরোলজিক্যাল ডিপার্টমেন্টের (আইএমডি) মৃত্যুঞ্জয় মহাপাত্র ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস পত্রিকাকে বলেছেন, ‘প্রায় ২৪ দিন ধরে দেশের বিভিন্ন অংশে তীব্র তাপ অনুভব হয়েছে।’ ভারতের উত্তরের বিভিন্ন অঞ্চলে মে মাসের মাঝামাঝি সময়ে চরম তাপ অনুভব হয়েছে। বেশ কয়েকটি শহরে তাপমাত্রা ৪৫-৫০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে রয়েছে। কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ১৮ জন ভোটগ্রহণ কর্মকর্তা তাপজনিত অসুস্থতায় মারা গেছেন। ৩১ মে বিহার, উত্তরপ্রদেশ ও ওড়িশায় হিটস্ট্রোকে নির্বাচনী কর্মকর্তাসহ অন্তত ৩৩ জন মারা গেছেন। এ বছর ভারতে মৌসুমি বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে আইএমডি। তবে মহাপাত্র বলেছেন, ‘সতর্কতা বা প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা না নেওয়া হলে তাপপ্রবাহ আরো তীব্র হবে।’ প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ভারত বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম গ্রিনহাউস গ্যাস নির্গমনকারী দেশ। মহাপাত্র বলেন, ‘মানুষের ক্রিয়াকলাপ, ক্রমবর্ধমান জনসংখ্যা, শিল্পায়ন ও পরিবহন ব্যবস্থা কার্বন মনোক্সাইড, মিথেন ও ক্লোরোকার্বনের পরিমাণ বাড়িয়ে দিচ্ছে। এতে শুধু নিজেদেরই নয়, আমাদের ভবিষ্যৎ প্রজন্মকেও হুমকির মুখে ফেলছি।

About The Author