দৈনিক গৌড় বাংলা

শনিবার, ১৮ই মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৪ঠা জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১০ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

ভারতের ৪ রাজ্যে তাপপ্রবাহের দাপট, দিল্লিতে তাপমাত্রা ছুঁল ৪২ ডিগ্রি

কালবৈশাখী আর বৃষ্টির জেরে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের অধিকাংশ জেলা তাপপ্রবাহ থেকে মুক্তি পেলেও, দেশটির চার রাজ্যে দাপটের সঙ্গেই চলছে তাপপ্রবাহ। তার মধ্যে রয়েছে গুজরাট, রাজস্থান, তামিলনাড়ু ও কর্ণাটক। তীব্র গরমে পুড়ছে দিল্লিও। সেখানে গতকাল মঙ্গলবার তাপমাত্রা ছুঁয়েছে ৪২ ডিগ্রি। এই মৌসুমে দিল্লিতে গত রোববার তাপমাত্রা ছিল সবচেয়ে বেশি। ৪১.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। গতকাল মঙ্গলবার সেই তাপমাত্রাও ছাড়িয়ে গেল। ভারতীয় গণমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকা এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানিয়েছে। প্রতিবেদন অনুসারে, আবহাওয়া ভবন আগেই সতর্কবার্তা দিয়েছিল, এবার তাপপ্রবাহের মাত্রা স্বাভাবিকের তুলনায় বেশি হবে বেশ কয়েকটি রাজ্যে। মে মাসে তাপপ্রবাহের সংখ্যা বাড়বে।

পূর্ব ও দক্ষিণ ভারতের একাংশে এপ্রিলের মাঝামাঝি থেকে তাপপ্রবাহের দাপট শুরু হয়। ধীরে সেই তাপপ্রবাহ মধ্য, উত্তর-পশ্চিম ও উত্তর ভারতের সমতল অঞ্চলেও ছড়িয়ে পড়ে। পূর্ব ভারতের একাংশে তাপপ্রবাহের দাপট কমলেও দেশের বাকি অংশে কিন্তু এই পরিস্থিতি বজায় রয়েছে। আবহাওয়া ভবন জানিয়েছে, রাজস্থান, পশ্চিম মধ্য প্রদেশ, গুজরাটে আগামী তিন দিন তাপপ্রবাহ চলবে। কেরালায় আগামী দুই দিন গরম ও অস্বস্তিকর পরিবেশ বজায় থাকবে। সোমবারও তামিলনাড়ু, ওড়িশা, কর্ণাটক ও তেলেঙ্গানায় তাপপ্রবাহ হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় সবচেয়ে বেশি তাপমাত্রা ছিল ঝাড়খ-ের সরাইকেলায় (৪৫.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস)। তারপর অন্ধ্র প্রদেশের কুর্নুল ও কর্ণাটকের গুলবর্গা। এ দুই জায়গায় সোমবার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৪৩.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

 

About The Author