ভারতের সঙ্গে শক্তিশালী ও স্থায়ী প্রক্রিয়ায় আলোচনা চায় পাকিস্তান

117

04

ভারতের সঙ্গে শক্তিশালী ও স্থায়ী প্রক্রিয়ায় আলোচনা চায় পাকিস্তান। দ্বিপক্ষীয় শক্তিশালী সম্পর্কের বিরোধীদের হামলায় দুই দেশের আলোচনা ক্ষতিগ্রস্ত হবে না- এমন একটি আলোচনা প্রক্রিয়া চায় ইসলামাবাদ। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক পাকিস্তানের একজন কর্মকর্তা এ তথ্য জানিয়েছেন। গত মাসের মাঝামাঝি সময়ে পাকিস্তান ও ভারতের পররাষ্ট্র সচিবদের আলোচনায় বসার কথা ছিল। ডিসেম্বর মাসের শেষ দিকে ভারতীয় প্রধানমন্ত্রীর অপ্রত্যাশিত লাহোর সফরের পরই এ বৈঠকের ঘোষণা দেয়া হয়েছিল। বৈঠকে দ্বিপক্ষীয় আলোচনা এগিয়ে নেয়ার প্রক্রিয়া নিয়ে কথা হবে বলে জানানো হয়েছিল। কিন্তু ভারতের পাঞ্জাব রাজ্যের পাঠানকোট বিমান ঘাঁটিতে গত মাসের সন্ত্রাসী হামলাকে কেন্দ্র করে পররাষ্ট্র সচিব পর্যায়ের সে বৈঠকে স্থগিত হয়ে যায়। পাকিস্তান এরইমধ্যে এ ধরনের বৈঠক স্থগিত রাখার বিপদের বিষয়টি ভারতকে অবহিত করেছে। পাকিস্তানের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অবসরপ্রাপ্ত লে কর্নেল নাসের খান জানজুয়ার মাধ্যমে এ বিষয়টি অবহিত করা হয় বলে জানিয়েছেন নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক পাক কর্মকর্তা। তিনি আরো বলেন, পাঠানকোটের ঘটনা টেস্ট কেস হিসেবে গ্রহণ করার আহ্বান জানিয়েছে ইসলামাবাদ। পাকিস্তান বলেছে, আলোচনা স্থগিত রাখার মতো ঘটনা ঘটা উচিত নয়। কারণ একবার আলোচনা বানচাল হয়ে গেলে তা আবার শুরু করতে অনেক কাঠখড় পোড়াতে হয় এবং কয়েক মাস বা বছর লেগে যায়। এর আগেও এমন ঘটনা ঘটেছে। ২০১৩ সালে জানুয়ারি মাসে ভারত ও পাকিস্তানের পররাষ্ট্র সচিবদের বৈঠক হওয়ার কথা ছিল কিন্তু সীমান্তে দীর্ঘমেয়াদি সংঘাতকে কেন্দ্র করে তা বানচাল হয়ে যায়। ২০১৪ সালের আগস্টে পররাষ্ট্র সচিবদের বৈঠক আবার শুরুর বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয় ইসলামাবাদ ও নয়াদিল্লি। কিন্তু ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মিরি নেতাদের সঙ্গে দিল্লির পাক হাই কমিশনারের বৈঠকের জের ধরে সে আলোচনাও বাতিল করে দেয় দিল্লি। সে সময় বলা হয়েছিল, ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে নাক গলাচ্ছে পাকিস্তান। আর এ সবের প্রেক্ষাপটে পাক-ভারত আলোচনার জন্য শক্তিশালী ও স্থায়ী প্রক্রিয়ার কথা বলছে ইসলামাবাদ।