ভারতীয় সিরিয়ালের বিরুদ্ধে নতুন আইন

14

ভারতীয় সব টেলিভিশন সিরিয়ালে খলচরিত্র বা ভিলেন চরিত্র থাকেই। তবে এবার আইন করে ভারতীয় সিরিয়ালে খলচরিত্র বা একাধিক বিয়ে দেখানো বন্ধ করতে যাচ্ছে ভারত। বলা হয়েছে, ভারতের কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় ছোট পর্দায় কুটিল দৃশ্য, খলনায়িকা চরিত্র দেখানোয় নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। এসব দেখে নাকি সমাজের বহু মানুষের মনে কুপ্রভাব পড়ছে। বাড়ছে পারিবারিক অশান্তি। মানুষের মনে এই ধরনের কুটিলতা ছড়ানো যাবে না। আর এই নিষেধাজ্ঞা বলবত করতে ১৯৯৪ সালের ক্যাবল টেলিভিশন নেটওয়ার্ক আইনেও পরিবর্তন আনা হচ্ছে।

এরই মধ্যে বিষয়টি নিয়ে নোটিশ জারি করেছেন ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের আন্ডার সেক্রেটারি সোনিকা খট্টর। বাংলা বা হিন্দি ধারাবাহিকে যে শাশুড়ি-বউমার ঝগড়া থেকে শুরু করে মেরে ফেলার পরিকল্পনা পর্যন্ত দেখানো হয়। বিষয়টি নিয়ে অনেক দিন ধরেই বিভিন্ন মাধ্যমে আপত্তি তোলা হচ্ছিল। সোশ্যাল অ্যাক্টিভিস্টরাও বিরোধিতা করে আসছেন এর বিরুদ্ধে। এই ধরনের বিষয় দেখানো বন্ধ হওয়া উচিত উল্লেখ করে তাদের দাবি, এগুলো সমাজের বহু মানুষকে খারাপ ভাবনায় প্রভাবিত করছে। তবে ছোট পর্দায় নায়ক-নায়িকা যতটা গুরুত্ব পায়, তার থেকেও বেশি গুরুত্ব দেওয়া হয় খলচরিত্রে। কারণ, খল চরিত্র ছাড়া টান টান উত্তেজনা তৈরি করাই মুশকিল। খলনায়িকা হিসেবে তুমুল জনপ্রিয় মৌমিতা গুপ্ত, স্বাগতা মুখোপাধ্যায়, জুন আন্টি ওরফে ঊষসী চক্রবর্তীর মতো অভিনেত্রীরা। এরা না থাকলে মানুষ সিরিয়াল দেখবে বলে মনে হয় না অনেকেরই।