বয়স্ক কিংবা বিধবা কোনো ভাতা নিতে টাকা লাগে না : মেয়র মোখলেস

30

চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মো. মোখলেসুর রহমান বলেছেন, বয়স্ক কিংবা বিধবা কোনো ভাতা নিতে কোনো টাকা লাগে না। কোনো থাবা নিতেই টাকা লাগে না। কেউ যদি টাকা চায় বা নেয়, তাহলে আপনারা সরাসরি আমাকে জানাবেন, আমি তার বা তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নিব। মঙ্গলবার সকাল ১০টায় সরকারের সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনীর আওতায় বয়স্ক ও বিধবা ভাতার উপকার ভোগীদের মাঝে নগদ অর্থ বিতরণের চলমান কর্মসূচির দ্বিতীয় দিনে চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভার ৬ নং ওয়ার্ডের শংকরবাটী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে ভাতাভোগীদের মাঝে নগদ অর্থ বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। পৌর মেয়র বলেন-দরিদ্র অসহায় বয়স্ক ও বিধবা মায়েদের কথা বিবেচনা করে ভাতা চালু করেছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এইসব ভাতা চালু করেছেন। কাজেই আপনাদের কাছে আমার অনুরোধ আপনারা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পাশে থাকবেন। আগামীদিনে প্রধানমন্ত্রীকে ভোট দিবেন।
অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সদর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব রুহুল আমিন, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যক্ষ আব্দুল জলিল, ৬ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি রবিউল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক প্রভাষক মিজানুর রহমান মিঠুন, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সহপ্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আব্দুল জলিল মাসুদসহ স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীবৃন্দ।
৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও পৌরসভার প্যানেল মেয়র সালাউদ্দিন ভোলা’র সভাপতিত্বে ওর্য়াডের তিনশতাধিক বয়স্ক, বিধবা, স্বামী পরিত্যক্তা নারীসহ প্রায় সাড়ে চারশ জনের মধ্যে ভাতা বিতরণ করা হয়। ব্যাংক এশিয়ার এজেন্ট ব্যাংকিং এর মাধ্যমে বিতরণ স্থলেই সুবিধাভোগী এসব মানুষ প্রতি মাসে পাঁচশ টাকা হিসাবে একসাথে ছয় মাসের তিন হাজার টাকা নগদ সংগ্রহ করতে পারছেন বলে জানানো হয়।
চাঁপাইনবাবগঞ্জ শহর সমাজ সেবা দপ্তর কর্মকর্তা ইমতিয়াজ কবীর জানান, বর্তমানে চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভার ১৫টি ওয়ার্ডে মোট ভাতাভোগীর সংখ্যা, ১৪ হাজার ২২৫ জন। এর মধ্যে বয়স্ক- ৭ হাজার ২৪৩ জন, বিধবা- ৪ হাজার ৩২২ জন ও প্রতিবন্ধী-২ হাজার ৬৬০ জন। তিনি জানান, প্রতিবন্ধীদের মাসিক ৭৫০ টাকা হারে ৬ মাসের টাকা এক সঙ্গে প্রদান করা হয়েছে। বতর্মানে বয়স্ক ও বিধবা ভাতা বিতরণ চলছে। মাসিক ৫০০ টাকা হরে তাদেরকেও এক সঙ্গে ৬ মাসের টাকা দেয়া হচ্ছে। ১,২,৩,৪ নম্বর ওয়ার্ডের ভাতাভোগীদের মাঝে বিতরণ করা হয়েছে। আজ (গতকাল) মঙ্গলবার ৫ ও ৬ নম্বর ওয়ার্ডের উপকারভোগীদের মাঝে বিতরণ করা হয়।