ব্রাজিলে ভূমিধসে ৯৪ জনের মৃত্যু

5

ব্রাজিলের পেট্রোপলিস শহরে প্রবল বর্ষণে সৃষ্ট বন্যা এবং ভূমিধসে অন্তত ৯৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। রিও ডি জেনিরোর উত্তরের পাহাড়স্থ এই শহরটি বন্যায় ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বর্ষণে সৃষ্ট বন্যার পানির প্রবল বেগে শহরটির আশপাশ এলাকার বাড়িঘর ধসে গেছে এবং রাস্তায় থাকা অনেক গাড়ি পানিতে ভেসে গেছে। সবচেয়ে বেশি ক্ষয়ক্ষতি হওয়া এলাকার একটিতে পানির প্রবল বেগে অন্তত ৮০টি বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। শহরটির মেয়র জরুরি সেখানে জরুরি অবস্থা জারি করেছেন। ঘটনার পরপরই উদ্ধারকারীরা জীবিতদের উদ্ধারে অভিযান চালাচ্ছেন। ব্রাজিলের সিভিল ডিফেন্স এক টুইটে বলেছে, এখন পর্যন্ত ২৪ ব্যক্তিকে জীবিত উদ্ধার এবং ৯৪ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে শেয়ার করা ভিডিওতে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি এবং রাস্তায় থাকা যানবাহন ভেসে যেতে দেখা যায়। খবর বিবিসি অনলাইনের। ওয়েন্ডেল পিও লরেনকো নামে ২৪ বছর বয়সী শহরটির এক বাসিন্দা স্থানীয় চার্চে আশ্রয় নিতে যাওয়ার সময় বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলেন, আমি একটা মেয়েকে পেয়েছি যাকে জীবিত কবর দেওয়া হয়েছিল। সবাই বলছে, এটা অনেকটা যুদ্ধক্ষেত্রের মতো মনে হচ্ছে। এদিকে রাষ্ট্রীয় সফরে রাশিয়ায় থাকা দেশটির প্রেসিডেন্ট জাইর বোলসোনারো বলেছেন, ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য তিনি তাৎক্ষণিক সাহায্যের ব্যবস্থা করবেন। পর্যটকদের জন্য পেট্রোপলিস জনপ্রিয় একটি গন্তব্য। একসময় ব্রাজিলের স¤্রাট গ্রীষ্মকাল এলে পাহাড়ি এই শহরটিতে এসে থাকতেন। তবে এই এলাকাটি ভূমিধসপ্রবণ। ২০১১ সালে সবচেয়ে ভয়াবহ ভূমিধসের ঘটনা ঘটেছিল পেট্রোপলিস ও এর আশপাশের শহরে। ওই সময় ৯ শতাধিক মানুষ নিহত হয়েছিল।