ব্যস্ত সময় পার করছেন ফারিয়া

68

01-চলচ্চিত্রে নুসরাত ফারিয়ার অভিষেকটা গত বছর হলেও এরই মধ্যে তিনি ভালো দর্শকপ্রিয়তা পেয়েছেন। তার অভিনীত ‘আশিকি’ ছবিটি মুক্তি পায় ২০১৫ সালে। এরপর মুক্তি পায় ‘হিরো ৪২০’ ছবিটি। বর্তমানে তিনি বাবা যাদব পরিচালিত ‘বাদশা’ ছবিতে কাজ করছেন। এ ছবিতে তার বিপরীতে নায়ক হিসেবে রয়েছেন ওপার বাংলার জনপ্রিয় নায়ক জিত। এরই মধ্যে এ ছবির বেশিরভাগ কাজ শেষ হয়েছে। ছবির জন্য প্রায়ই কলকাতা-ঢাকা দৌড়াদৌড়ির মধ্যে থাকতে হলেও এ বৈশাখে ঢাকায় ছিলেন তিনি।
এ প্রসঙ্গে নুসরাত ফারিয়া বলেন, বৈশাখটা ভালোই কেটেছে। সারা দিন বাসায় অনেক মেহমান এসেছে। অনেক কথা ও আড্ডা হয়েছে। গতকাল কুমিল্লায় নানু বাড়ি এসেছি। পরিবারের সঙ্গে কয়েকটা দিন কাটাতে চাই। রোববার কুমিল্লা থেকে ঢাকায় ফিরে ২৩শে এপ্রিল কলকাতায় যাব। ‘বাদশা’ ছবির বাকি কাজ হবে কলকাতা ও যুক্তরাজ্যে। এরপর ফারিয়া শুরু করবেন ‘প্রেমী ও প্রেমী’ ছবিটি। নতুন এ ছবির কাজ শুরু হবে ২৮শে মে থেকে। এ ছবিতে তার বিপরীতে প্রথমবার অভিনয় করবেন আরিফিন শুভ। ছবিতে একটু ভিন্ন চেহারায় দর্শকরা তাকে দেখতে পাবেন। সব মিলিয়ে টানা ব্যস্ততায় সময় কাটছে এ নায়িকার।
এ প্রসঙ্গে ফারিয়া বলেন, এখানে আমার চরিত্রের নাম আনিতা। প্রতিটি ছবিতে আমার ভিন্ন ভিন্ন সাজগোজ থাকছে। এ ছবিতেও আমাকে একজন কর্পোরেট লুকের মেয়ের চেহারায় দর্শক দেখতে পাবেন। আর ছবিটি পরিচালনা করবেন জাকির হোসেন রাজু। সব মিলে ছবিটি ভালো হবে বলে আশা করছি। প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়ার ব্যানারে ছবিটি নির্মাণ হচ্ছে। তবে ‘বাদশা’ ছবিটি এবারের ঈদে মুক্তি পেতে যাচ্ছে। তাই এ ছবিটি নিয়ে বেশ আশাবাদী ফারিয়া। ছবিতে জিতের সঙ্গে অভিনয়ের অভিজ্ঞতা নিয়ে ফারিয়া জানালেন, ‘বাদশা’ ছবিতে জিত বেশ সহযোগিতা করেছেন। প্রথম দিনেই আমাদের একটি রোমান্টিক দৃশ্যে অভিনয় করতে হয়। দুজনের মধ্যে ভুল বোঝাবুঝির দৃশ্য ছিল এটি। কাজের ক্ষেত্রে তিনি বেশ পেশাদার। প্রথম দিন থেকে আজ অবধি প্রতিটি দৃশ্য করার আগে একাধিকবার আমাকে রিহার্সেল করতে হয়েছে। আর এ ব্যাপারে তার মধ্যে কোনো বিরক্তি ভাব দেখিনি। পর্দা কিংবা পর্দার বাইরে তিনি স্মার্ট ও ব্যক্তিত্বসম্পন্ন একজন মানুষ। ছবির কাজও ভালো হয়েছে। তাই ‘বাদশা’ ছবিটি নিয়ে আমি আশাবাদী। দেশীয় বাজারে বাংলা ছবির বর্তমান অবস্থা নাজুক। তাই একজন অভিনেত্রী হিসেবে এ দুরবস্থা থেকে যেন আমরা বেরিয়ে আসতে পারি সেটাই চাওয়া ফারিয়ার। তাই একজন অভিনেত্রী হিসেবে নুসরাত ফারিয়ার ভবিষ্যৎ পরিকল্পনার কথা জানতে চাইলে তিনি মানবজমিনকে বলেন, আমি কখনই বড় মিশন নিয়ে এগুতে চাইনি। কারণ ছোট ছোট স্বপ্ন আমার। আপাতত বাংলা ছবির সুদিন দেখতে চাই।