বোরো সংগ্রহে সরকার

64

gourbangla logoসরকার বোরো ধান ও চাল কেনার ঘোষণা দিয়েছে। রবিবার খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম সচিবালয়ে প্রেস কনফারেন্স করে সরকারের এই সিদ্ধান্তের কথা জানান। মোট ১৩ লাখ মেট্রিক টনের মধ্যে ৭ লাখ টন ধান ও ৬ লাখ টন চাল কিনবে সরকার। সরকারের ক্রয়মূল্য গতবারের মতো ধান ২২ টাকা কেজি ও চাল ২৯ টাকা কেজি দরে ঠিক করা হয়েছে। মন্ত্রী প্রেস কনফারেন্সে এবারের বোরো সংগ্রহে বৈপ্লবিক পরিবর্তন আনা হচ্ছে বলে দাবি করেছেন। যদিও তিনি এর ব্যাখ্যা দেননি। তবে তিনি বলেছেন, সরকার সরাসরি কৃষকের কাছ থেকে ধান ও চাল কিনবে।কৃষক যখন বাজারে ধানের ন্যায্য মূল্য পাচ্ছে না বলে পত্রপত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ হচ্ছে সেই সময় সরকারের এই ঘোষণা কৃষককে নিশ্চয় আশ্বস্ত করবে। এখন বড় কথা হলো, সরকারের এই সংগ্রহ অভিযানের ফল কৃষক সরাসরি পাবে কিনা।সরকারিভাবে ধান ও চাল সংগ্রহের ব্যাপারে আমাদের অতীত অভিজ্ঞতা ভাল নয়। সম্ভবত সরকারও সেই বিষয়ে ওয়াকিবহাল। আর সেই কারণেই সরকার ধান ও চাল সংগ্রহে বৈপ্লবিক পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। অবশ্য প্রয়োগ না হওয়া পর্যন্ত বলা যাবে না সরকারের সিদ্ধান্ত কি ফল দেবে। তবে এতটুকু বলা যায়, সরকার যদি তার পরিকল্পনা বাস্তবায়নে বদ্ধপরিকর হয় এবং তা বাস্তব ভিত্তিক হয় তা হলে কিছুটা ফল তো আসবেই। আমরা এর আগে অবশ্য লিখেছি যে বোরো মৌসুমে ধান আবাদের পাশাপাশি আমাদের প্রচলিত আবাদের দিকেও ফিরে যাওয়া দরকার। আমরা আগেও বলেছি, খরিপ মৌসুমে আগে যে সব জমিতে তেল, ডাল বা মসলা জাতীয় ফসল আবাদ হতো সেখানে আবার ওই সব ফসলের আবাদ বাড়ানো দরকার। তাতে ঐ সব পণ্যের আমদানি নির্ভরতা কমবে এবং শুষ্ক মৌসুমে ধান আবাদে ভূগর্ভস্থ পানির উপর যে চাপ সৃষ্টি হয়েছে তাও হ্রাস পাবে। সামগ্রিকভাবে কৃষি, কৃষক ও দেশের জন্যও এটি মঙ্গল বলে আমরা মনে করি।