বৃষ্টিতে বিশ্বকাপ ফাইনাল পন্ডু হলে কী হবে?

2

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ২০২২ এর চ্যাম্পিয়ন পেতে আর একটি ম্যাচই বাকি। রোববার মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে শিরোপার লড়াইয়ে মুখোমুখি ইংল্যান্ড আর পাকিস্তান। পুরো ক্রিকেটবিশ্ব যখন জমজমাট ফাইনালের অপেক্ষা করছে, তখন মুচকি হাসছেন প্রকৃতিদেবী। কারণ সেদিন মেলবোর্নে বৃষ্টিপাতের সমূহ সম্ভাবনা আছে। কী হবে, যদি ফাইনাল ভেস্তে যায়? এবারের বিশ্বকাপে বারবার বাগড়া দিয়েছে বৃষ্টি। বেশকিছু ম্যাচ বৃষ্টিতে পন্ডু হয়েছে, আবার কিছু ম্যাচের ফলাফল হয়েছে ডাকওয়ার্থ লুইস পদ্ধতিতে। ক্রিকেট ওয়েবসাইট ইএসপিএনক্রিকইনফো জানিয়েছে, আবহাওয়ার পূর্বাভাস অনুযায়ী রোববার মেলবোর্নে ১৫ থেকে ২৫ মিলিমিটার বৃষ্টির ৯৫ শতাংশ সম্ভাবনা আছে। বজ্রপাতের সঙ্গে মুষলধারে বর্ষণ হতে পারে। বিশ্বকাপের নক-আউট ম্যাচগুলোর জন্য অবশ্য একটি করে রিজার্ভ ডে রেখেছে আইসিসি। তাই রোববার ফাইনাল না হলে সেটা পরদিন সোমবার মাঠে গড়াতে পারে। কিন্তু সেদিনও মেলবোর্নে বৃষ্টির সম্ভাবনা ৯৫ শতাংশ! নিয়মানুযায়ী নক-আউট পর্বের ফলাফল হতে কমপক্ষে ১০ ওভার খেলা হতে হবে। তাই রোববার ই ওভার কমিয়ে খেলা শেষ করার চেষ্টা করা হবে। যদি রোববার খেলা শেষ করা না যায়, তাহলে যে পর্যন্ত খেলা হবে, পরদিন রিজার্ভ ডেতে ওই জায়গা থেকেই পুনরায় খেলা শুরু হবে। আর যদি রোববার যদি খেলা সম্ভব না হয়, তাহলে পরদিন পুরো ২০ ওভার খেলা হবে। এমনিতে ফাইনালে নির্ধারিত সময়ের চেয়ে ৩০ মিনিট বেশি বরাদ্দ থাকে। আর রিজার্ভ ডেতে বরাদ্দ রাখা হবে বাড়তি দুই ঘণ্টা। দুই দিন মিলিয়েও যদি খেলা সম্ভব না হয়, তাহলে দুই দলের মাঝে ট্রফি ভাগ করে দেওয়া হবে। ২০০২-০৩ সালের চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির শিরোপা ভারত ও শ্রীলঙ্কার মধ্যে ভাগ করে দেওয়া হয়েছিল।