গভীর শ্রদ্ধায় চাঁপাইনবাবগঞ্জে বীরশ্রেষ্ঠ জাহাঙ্গীরের শাহাদাৎবার্ষিকী পালিত

107

গভীর শ্রদ্ধায় চাঁপাইনবাবগঞ্জে বীরশ্রেষ্ঠ জাহাঙ্গীরের শাহাদাৎবার্ষিকী পালিতচাঁপাইনবাবগঞ্জে গত কাল সোমবার গভীর শ্রদ্ধায় বীর শ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্ধিন জাহাঙ্গীরের ৪৪তম শাহাদাৎ বার্ষিকী পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষ্যে জেলা মুক্তিযোদ্ধা ইউনিট কমান্ড বিভিন্ন কর্মসূচির আয়োজন করে। কর্মসূচির মধ্যে ছিল সকাল সাড়ে ৯টায় শহরে রেহাইচর এলাকায় এই বীরশ্রেষ্ঠের শহীদি স্থানে সমঋতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ, দোয়া মাহফিল, ঐতিহাসিক গৌাড়ের ছোট সোনামসজিদ প্রাঙ্গনের বীরশ্রেষ্ঠের সমাধীতে পুষ্পস্তবক অর্পণ, আলোচনা সভা ও বালিয়াদিঘিতে গণকবর জিযারত প্রভৃতি। রেহাইচরে স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর কবীর, পুলিশ সুপার বশির আহম্মদ পিপিএম, জেলা মুক্তিযোদ্ধা কামন্ডার সিরাজুল হক, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব রুহুল আমিন, মুক্তিযোদ্ধা এনামুল হক ফিটু প্রমুখ। এখানে প্রথম আলো বন্ধু সভার সদস্যরাও পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। পরে সোনামসজিদ প্রাঙ্গনে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন, মুক্তিযুদ্ধে ৭ নং সেক্টরের সাব সেক্টর কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) গিয়াস উদ্দিন আহম্মেদ চৌধুরী (বীর বিক্রম)। বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন সাবেক বিদ্যুৎ জ্বালানী ও খনিজ সম্পদক প্রতিমন্ত্রী ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব) এম এনামুল হক, গোলাম মোস্তফা বিশ্বাস এসপি, রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের সাবকে মেয়র দুরুল হোদা, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব রুহুল আমিন প্রমুখ। এতে সভাপতিত্ব করেন-জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার সিরাজুল হক। উল্লেখ্য, ১৯৭১’র ১৪ডিসেম্বর সকাল ৯টার দিকে চাঁপাইনবাবগঞ্জ শহরের রেহাইচরে শত্রুর বুলেটে শহীদ হন ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর। ১৫ ডিসেম্বর তাঁর মরদেহ উদ্ধার করে সোনামসজিদ প্রাঙ্গনে সড়ক দুর্ঘনায় নিহত মেজর নাজমুল হকের কবরের পাশে তাঁকে সমাহিত করা হয়।