বিশ্ব ইজতেমা শেষ হচ্ছে রবিবার

111

monajatআখেরি মোনাজাতের মধ্যে দিয়ে এবারের বিশ্ব ইজতেমা শেষ হচ্ছে রোববার। গত শুক্রবার বাদ ফজর শুরু হয় বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় ধাপ। এবার দুই ধাপের বিশ্ব ইজতেমায় অংশ নিয়েছেন দেশের ৩৩টি জেলার মুসল্লি। এ ছাড়া বিদেশি কয়েক হাজার মুসল্লি দুই ধাপের বিশ্ব ইজতেমায় অংশ নিয়েছেন। এদিকে, গতকাল শনিবার বাদ ফজর মাওলানা মো. জমশেদের আমবয়ানে শুরু হয় দ্বিতীয় দিন। ফজরের নামাজের পর লাখো মুসল্লি নিজ নিজ খিত্তায় অবস্থান নিয়ে দিন-দুনিয়া ও আখেরাতের বিষয়ে দেওয়া বয়ান শোনেন। সকাল থেকে মুসল্লিরা ব্যস্ত সময় পার করেন ধর্মীয় বিষয়ের উপর বিভিন্ন দিক নির্দেশনামূলক বয়ান শুনে। তাবলিগ জামাতের শীর্ষ সব আলেমদের উর্দু বয়ান তাৎক্ষণিক বাংলা, ইংরেজি ও অন্যান্য ভাষায় অনুবাদ করে শোনান শীর্ষ পর্যায়ের আলেমরা। বয়ানে বলা হয়, আল্লাহর কাছে আমল ছাড়া দুনিয়ার জিন্দেগীর কোনো মূল্য নেই। দ্বীনের দাওয়াতের মাধ্যমে ইমান মজবুত হয়। ইমান মজবুত হলে আল্লাহর সঙ্গে গভীর সম্পর্ক গড়ে ওঠে। আর এ সম্পর্ক গড়ে ওঠলে দুনিয়া ও আখেরাতে কামিয়াবি হাসিল হয়। এদিকে, বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় ধাপে অংশ নিতে এসে জয়নাল আবেদীন নামে এক মুসল্লি মারা গেছেন। তার বয়স হয়েছিল ৭০ বছর। জয়নাল কিশোরগঞ্জের কুলিয়াররচর থানার উত্তর শালুয়া এলাকার মৃত সৈয়দ আলী মুন্সীর ছেলে। গত শুক্রবার রাত সোয়া ১১টার দিকে তিনি মারা যান। বিশ্ব ইজতেমার মুরুব্বি মো. গিয়াস উদ্দিন জানান, রাতে জয়নাল আবেদীন শ্বাসকষ্ট সমস্যায় ভুগছিলেন। এর কিছু সময় পর তিনি ইজতেমার ময়দানে মারা যান। এর আগে, প্রথম ধাপে যোগ দিতে এসে আট মুসল্লির মৃত্যু হয়। তারা হলেন, বেদন মিয়া (৬৫), তারা মিয়া (৫৫), বাবুল মিয়া (৬৫), সাহেব আলী (৪০), হোসেন আলী (৬০), ফজলুল হক (৬০), আবদুস সাত্তার (৬৫) ও জানু ফকির (৬৮)। বিশ^ ইজতেমায় এবার দুই ধাপে অংশ নেওয়া জেলাগুলো হলো- ঢাকা, টাঙ্গাইল, ময়মনসিংহ, মৌলভীবাজার, ব্রাহ্মণবাড়ীয়া, মানিকগঞ্জ, জয়পুরহাট, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, রংপুর, গাজীপুর, রাঙামাটি, খাগড়াছড়ি, বান্দরবান, গোপলগঞ্জ, শরীয়তপুর, সাতক্ষীরা, যশোর, মেহেরপুর, লালমনিরহাট, রাজবাড়ী, দিনাজপুর, হবিগঞ্জ, মুন্সিগঞ্জ, কিশোরগঞ্জ, কক্সবাজার, নোয়াখালী, বাগেরহাট, চাঁদপুর, পাবনা, নওগাঁ, কুষ্টিয়া, বরগুনা ও বরিশাল।