বিশ্বব্যাপী খাদ্যসংকট সৃষ্টি করতে পারে ইউক্রেন যুদ্ধ : জাতিসংঘ

0

ইউক্রেনে রাশিয়ার আগ্রাসন শিগগিরই বিশ্বব্যাপী খাদ্যসংকট সৃষ্টি করতে পারে বলে জাতিসংঘ সতর্ক করে দিয়েছে। এ বিশ্বসংস্থার মতে, এ সংকট কয়েক বছর ধরে চলতে পারে। জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস বলেছেন, দাম বেড়ে চলার কারণে যুদ্ধ দরিদ্র দেশগুলোর খাদ্য নিরাপত্তাহীনতাকে আরো খারাপ করেছে। গুতেরেস আরো বলেন, ইউক্রেনের খাদ্যশস্য রপ্তানি যুদ্ধপূর্ব পর্যায়ে ফিরে না এলে কিছু দেশ দীর্ঘমেয়াদি দুর্ভিক্ষের সম্মুখীন হতে পারে। সংঘাতের কারণে ইউক্রেনের বন্দর থেকে খাদ্য সরবরাহ বন্ধ হয়ে গেছে। দেশটি যুদ্ধের আগে প্রচুর পরিমাণে ভোজ্য তেলের পাশাপাশি ভুট্টা এবং গমের মতো খাদ্যশস্য রপ্তানি করত। রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে বিশ্বব্যাপী খাদ্য সরবরাহ হ্রাস পেয়েছে। বিকল্প সরবরাহের উৎসগুলোরও দাম বেড়েছে। জাতিসংঘের মতে, বিশ্বব্যাপী খাদ্যের দাম গত বছরের একই সময়ের তুলনায় প্রায় ৩০ শতাংশ বেশি। বুধবার নিউইয়র্কে জাতিসংঘ সদর দপ্তরে দেওয়া বক্তব্যে গুতেরেস বলেন, ‘জলবায়ু পরিবর্তন ও মহামারির সঙ্গে মিলে সংঘাতের প্রভাব কোটি কোটি মানুষকে খাদ্য নিরাপত্তাহীনতার দিকে ঠেলে দেওয়ার হুমকি সৃষ্টি করেছে। এর হাত ধরে আসতে অপুষ্টি, ব্যাপক ক্ষুধা এবং দুর্ভিক্ষ। ‘জাতিসংঘ মহাসচিব বলেন, ‘যদি আমরা একসঙ্গে কাজ করি তাহলে আমাদের বিশ্বে এখনও পর্যাপ্ত খাদ্য আছে। কিন্তু যদি আমরা এখনই এই সমস্যার সমাধান না করি, তাহলে আগামী মাসগুলোতে বিশ্বব্যাপী খাদ্য ঘাটতির আশঙ্কা সৃষ্টি হবে।’ গুতেরেস সতর্ক করে দিয়ে বলেন, সংকটের একমাত্র কার্যকর সমাধান হচ্ছে ইউক্রেনের খাদ্য উৎপাদন এবং সেইসঙ্গে রাশিয়া এবং বেলারুশ উভয়ের উৎপাদিত সার বিশ্ব বাজারে পুনরায় যুক্ত করা। জাতিসংঘ মহাসচিব বলেন, তিনি রাশিয়া ও ইউক্রেনের পাশাপাশি যুক্তরাষ্ট্র ও ইইউ এর সঙ্গে খাদ্য রপ্তানি স্বাভাবিক পর্যায়ে ফিরিয়ে আনার জন্য ব্যাপকভাবে যোগাযোগ করে যাচ্ছেন।
সূত্র : বিবিসি।