বিমান ঘাঁটিতে ভয়াবহ হামলা চালানোয় ইউক্রেনকে দায়ী মস্কোর

2

মস্কো গত সোমবার বলেছে, তারা ইউক্রেনের নতুন এক ড্রোন হামলা ঠেকিয়ে দিয়েছে। তাদের যৌথ সীমান্ত থেকে কয়েকশ’ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত একটি সামরিক বিমান ঘাঁটিতে কিয়েভ এ হামলার চেষ্টা চালায়। বিমান ঘাঁটিটি কৌশলগত দিক থেকে অনেক গুরুত্বপূর্ণ। এদিকে ইউক্রেন জাতিসংঘ থেকে রাশিয়াকে বাদ দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে। খবর এএফপি’র। রাশিয়া বলেছে, তারা কৌশলগত দিক থেকে দেশের গুরুত্বপূর্ণ বিমান ঘাঁটি এঞ্জেলে চালানো ড্রোন হামলা ব্যর্থ করে দিয়েছে। ইউক্রেনে বিমান হামলা চালাতে এ বিমান ঘাঁটি ব্যবহার করা হতো বলে কিয়েভ জানিয়েছে। আঞ্চলিক কর্তৃপক্ষ জানায়, ধ্বংসাবশেষের আঘাতে তিন কর্মী নিহত হয়েছে। একই দিন রাশিয়ার অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা সংস্থা জানায়, তারা ইউক্রেনের চার ‘ঘাতককে’ হত্যা করেছে। তারা সীমান্ত এলাকা দিয়ে রাশিয়ায় প্রবেশের চেষ্টা করছিল। রাশিয়ার বিভিন্ন সামরিক ঘাঁটি এবং বেসামরিক অবকাঠামো লক্ষ্য করে হামলা চালানোয় কিয়েভপন্থী বাহিনীকে দায়ী করে মস্কো। ক্রিমিয়াকে রাশিয়ার সাথে যুক্ত করা একটি সেতু বোমা মেরে উড়িয়ে দেওয়ার ঘটনায় কিয়েভকে দায়ী করে রাশিয়া।

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় সোমবার জানায়, তারা ইউক্রেনের সীমান্ত থেকে ৬শ’ কিলোমিটারেরও বেশি দূরে অবস্থিত দক্ষিণাঞ্চলীয় সারাতোভ এলাকায় তাদের এঞ্জেল বিমান ঘাঁটি লক্ষ্য করে চালানো ইউক্রেনের একটি ড্রোন হামলা ঠেকিয়ে দিয়েছে। খবরে বলা হয়, এক মাসেরও কম সময়ের মধ্যে এটি ছিল এঞ্জেল সামরিক ঘাঁটিতে দ্বিতীয় হামলার ঘটনা। এছাড়া, গত ২৪ ফেব্রুয়ারি প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিন ইউক্রেনে সৈন্য পাঠানোর পর থেকে এটি ছিল রাশিয়ার ভূখন্ডের একেবারে অভ্যন্তরে চালানো একটি হামলা। এদিকে ইউক্রেন সোমবার জাতিসংঘ থেকে রাশিয়াকে বাদ দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে। রাশিয়া হচ্ছে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের একটি স্থায়ী সদস্য দেশ। দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়, ‘জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের একটি স্থায়ী সদস্য দেশ হিসেবে রাশিয়া ফেডারেশনের মর্যাদা কেড়ে নেওয়ার এবং দেশটিকে সম্পূর্ণভাবে জাতিসংঘ থেকে বাদ দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে ইউক্রেন।