বায়ুদূষণ পরিস্থিতি ভয়াবহ হতে পারে

5

জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে দেখা দিচ্ছে তীব্র তাপপ্রবাহ এবং দাবানল। আর এতে বাড়ছে বায়ুদূষণ। পরিস্থিতি ভয়াবহ আকার ধারণ করতে পারে বলে সতর্ক করেছে জাতিসংঘ। মানুষের স্বাস্থ্য ও বাস্তুসংস্থানের ব্যাপক ক্ষতি হবে বলেও আশঙ্কা করছে সংস্থাটি। ভয়াবহ এই ক্ষতি থেকে বিশ্বকে রক্ষা করতে এখনই পদক্ষেপ নেয়ার আহ্বান জানিয়েছে জাতিংসঘ। চলতি বছর প্রকৃতির অস্বাভাবিক আচরণ দেখেছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ। কখনও খরা, কখনও অতিবৃষ্টি আবার কখনো নজিরবিহীন বন্যায় বিপর্যস্ত মানুষ। প্রকৃতির এই বিরূপ আচরণের জন্য মানুষের নানা কর্মকা-কেই দুষছেন বিশেষজ্ঞরা।

এবার নতুন করে আরেকটি শঙ্কার কথা জানিয়েছে জাতিসংঘ। সম্প্রতি বিশ্ব আবহাওয়া সংস্থা-ডব্লিউএমও প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে ঘন ঘন তীব্র তাপপ্রবাহ এবং দাবানলের কারণে বিশ্বজুড়ে বাতাসের গুণমান খারাপ হচ্ছে। এতে মানুষের স্বাস্থ্য ও বাস্তুসংস্থানের ব্যাপক ক্ষতির আশঙ্কা রয়েছে। ডব্লিউএমও বলছে, আগামী শতাব্দীতে কোটি কোটি মানুষকে ক্ষতির মুখে ফেলবে দূষণ এবং জলবায়ু পরিবর্তন। ভয়াবহ এই পরিস্থিতি থেকে বিশ্বকে রক্ষা করতে আগে থেকেই পদক্ষেপ নেয়ার আহ্বান জানিয়েছে সংস্থাটি। ২০২১ সালে সাইবেরিয়া এবং উত্তর আমেরিকাজুড়ে ভয়াবহ দাবানলের প্রভাবের বিষয়টি গবেষণা করেছে ডব্লিউএমও।

এতে দেখা গেছে, দাবানলের কারণে স্বাস্থ্যঝুঁকি ব্যাপকভাবে বেড়ে গেছে। এমনকি পূর্ব সাইবেরিয়াতেও বায়ুদূষণ এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে যা আগে দেখা যায়নি। পৃথিবী উষ্ণ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে দাবানল এবং বায়ুদূষণ বাড়বে বলে আশঙ্কার কথা জানিয়েছেন ডব্লিউএমও প্রধান পেতেরি তালাস। এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, এ বছর ইউরোপ ও চীনে ব্যাপক দাবদাহ দেখা গেছে। এর সঙ্গে যুক্ত হয়েছে প্রখর তাপ এবং বাতাসের কম গতি। এগুলো উচ্চদূষণের জন্য সহায়ক। এগুলোই ভবিষ্যতের জন্য সতর্কবার্তা।